রেক্ট্যাঙ্গেল প্যাটার্ন

0
779

রেক্ট্যাঙ্গেল প্যাটার্ন খুবই সাধারণ একটি প্যাটার্ন যা ট্রেডিং রেঞ্জ বা বক্স নামেও পরিচিত। এই প্যাটার্ন একটি সাপোর্ট এবং একটি রেজিস্টান্স লাইনের সমন্বয়ে তৈরি হয়। এই প্যাটার্নের উপড়ে একটি রেজিস্টান্স লাইন এবং নিচে একটি সাপোর্ট লাইন থাকে। সাপোর্ট এবং রেজিস্টান্স লাইন উভয়ে সর্বনিন্ম দুটি বিন্দু নিয়ে তৈরি করা হয়। এই দুটি উচ্চ বিন্দু এবং নিন্ম বিন্দু তৈরি না হলে এই প্যাটার্ন তৈরি হবে না এবং এই কারনেই এই প্যাটার্নটি ডাবল টপ বা ডাবল বোটম প্যাটার্ন থেকে ভিন্ন যেখানে ডাবল টপ বা ডাবল বোটম প্যাটার্নে দুটি উচ্চ বিন্দু বা নিন্ম বিন্দু থাকে। শেয়ারের প্রাইস এই প্যাটার্নের দুটি লাইনের মাঝে সীমাবধ থাকে এবং এক সময় ব্রেক আউট বা ব্রেক ডাওনের মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট ট্রেন্ড তৈরি করে। যদি শেয়ারের মূল্য বা ক্যান্ডেল এই প্যাটার্নের ভেতরে থেকে ওঠানামা করে তাহলে ঐ শেয়ারের কোন ট্রেন্ড থাকে না অর্থাৎ ঐ শেয়ারটি তখন নন ট্রেন্ডিং অবস্থানে আছে বলে বিবেচনা করা হয়। এরপর যখন শেয়ারের মূল্য রেজিস্টান্স লাইকে ব্রেক আউট করে তখন তা বুলিশ বা বাই সিগন্যাল হিসেবে ধরা হয় কারন এই ব্রেকআউটের ফলে আপট্রেন্ড নিশ্চিত হয়। বিপরীতভাবে সাপোর্ট লাইন এর ব্রেক ডাউন একটি বিয়ারিশ বা সেল সিগন্যাল যা ঐ সেরের ডাওন ট্রেন্ড নিশ্চিত করে।

চিত্রে মেট্রো স্পিনিং এর একটি চার্ট দেখা যাচ্ছে এবং ঐ চার্টে আমরা একটি রেক্ট্যাঙ্গেল প্যাটার্ন বা বক্স প্যাটার্ন দেখতে পাচ্ছি। ২০১২ সালের মে মাসে এই প্যাটার্নের ব্রেক ডাওন ঘটে যা একটি বেয়ারিশ সিগন্যাল এবং এরপর শেয়ারটি তার পূর্ববর্তী ট্রেন্ড অর্থাৎ ডাওন ট্রেন্ড আ পুনরায় যাত্রা শুরু করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here