মোজাফফর হোসেন স্পিনিংয়ের উৎপাদন আংশিক বন্ধ

0
133

স্টাফ রিপোর্টার : বিদ্যমান কারখানার সংস্কার ও আধুনিকায়নের জন্য উৎপাদন সক্ষমতা আপাতত অর্ধেকে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বস্ত্র খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানি মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলস লিমিটেড। ৬ মে, রোববার থেকেই কারখানার উৎপাদন আংশিক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ।

সংস্কার ও আধুনিকায়ন শেষে পূর্ণাঙ্গ সক্ষমতায় উৎপাদনে যাবে কোম্পানিটি। তবে কবে থেকে পূর্ণাঙ্গ সক্ষমতায় উৎপাদন শুরু হবে সে বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি কোম্পানিটি।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে কোম্পানিটি জানায়, বিএমআরইর আওতায় বর্তমানে কারখানায় স্থাপনা নির্মাণের কাজ চলছে। পাশাপাশি আমদানি করা কিছু যন্ত্রপাতিও এরই মধ্যে এসে গেছে। তাই সংস্কার ও আধুনিকায়নের মাধ্যমে বিদ্যমান ইউনিটকে যন্ত্রপাতি স্থাপনের উপযোগী করে তুলতে হবে। এ কারণে কিছু সময়ের জন্য আংশিক উৎপাদন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ। গতকাল থেকেই কোম্পানিটির রোটর ইউনিটের ৫০ শতাংশ যন্ত্রপাতির কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

কোম্পানিটির কর্মকর্তারা বলছেন, আংশিক উৎপাদন বন্ধ থাকায় চলতি হিসাব বছরে কোম্পানির বিক্রি ও মুনাফায় কিছুটা প্রভাব পড়বে। তবে কারখানার সংস্কার ও আধুনিকায়ন শেষে পূর্ণাঙ্গ সক্ষমতায় উৎপাদন শুরু হলে কোম্পানির বিক্রি ও মুনাফায় উল্লেখযোগ্য প্রবৃদ্ধি যোগ হবে।

এদিকে চলতি হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই-মার্চ) ৬৫ পয়সা শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) দেখিয়েছে মোজাফফর হোসেন স্পিনিং। আগের বছর একই সময়ে তা ছিল ১ টাকা ৯৫ পয়সা। ৩১ মার্চ এর এনএভিপিএস দাঁড়ায় ১৭ টাকা ৫১ পয়সায়।

এর আগে ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৭ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ দিয়েছে মোজাফফর হোসেন স্পিনিং। এক বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৬৮ পয়সা। ৩০ জুন কোম্পানির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়ায় ১৭ টাকা ৭০ পয়সায়।

২০১৬ হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় বস্ত্র খাতের কোম্পানিটি। তবে উদ্যোক্তা পরিচালকরা সে লভ্যাংশ নেননি। সে হিসাব বছরে মোজাফফর হোসেন স্পিনিংয়ের ইপিএস হয় ১ টাকা ৭২ পয়সা।

ডিএসইতে সর্বশেষ ১৬ টাকা ১০ পয়সায় মোজাফফর হোসেন স্পিনিংয়ের শেয়ার হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ারের সর্বনিম্ন দর ছিল ১৪ টাকা ১০ পয়সা ও সর্বোচ্চ দর ৩২ টাকা ৭০ পয়সা।

২০১৪ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ৩০০ কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ৯৪ কোটি ২৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা। রিজার্ভ ৬৪ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। মোট শেয়ার ৯ কোটি ৪২ লাখ ৯৮ হাজার ২০৩; যার মধ্যে উদ্যোক্তা-পরিচালক ৩৯ দশমিক ৬১ শতাংশ, প্রতিষ্ঠান ২৭ দশমিক ৯৫, বিদেশী দশমিক শূন্য ৮ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে বাকি ৩২ দশমিক ৩৬ শতাংশ শেয়ার।

বোনাস শেয়ার সমন্বয়ের পর সর্বশেষ নিরীক্ষিত মুনাফা ও বাজারদরের ভিত্তিতে এ শেয়ারের মূল্য আয় (পিই) অনুপাত ১০ দশমিক ৩১, হালনাগাদ অনিরীক্ষিত মুনাফার ভিত্তিতে যা ১৯ দশমিক শূন্য ৪।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here