মুনাফায় এগিয়ে ও পিছিয়ে পড়া কোম্পানি

0
2683

সিনিয়র রিপোর্টার : ব্যাংকিং, নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বীমা ও বহুজাতিক কোম্পানি বাদে পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত জুন ক্লোজিং কোম্পনির সংখ্যা ২৩৮টি। এর মধ্যে গত বছর জুন ক্লোজিংয়ের ৩৯টি কোম্পানি বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ দেয়নি। তবে ৩১টি কোম্পানি বিনিয়োগকারীদের ৩০ শতাংশের বেশি লভ্যাংশ দিয়েছিল।

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, কোম্পানির মধ্যে ২টি কোম্পানি ইতোমধ্যে লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানি ২টি হলো-ইউনাইটেড পাওয়ার ও এ্যাপেক্স ট্যানারী। এ্যাপেক্স ট্যানারি গত বছরের সমপরিমাণ (৪০ শতাংশ নগদ) লভ্যাংশ ঘোষণার ধারাবাহিকতা রেখেছে। সমপরিমাণ লভ্যাংশ ঘোষণা করলেও ইউনাইটেড পাওয়ার গত বছরের চেয়ে এবারে বেশি লভ্যাংশ ঘোষণা করে।

লভ্যাংশ ঘোষণার অপেক্ষায় থাকা অবশিষ্ট ২৯ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদনে দেখা যায়, চলতি হিসাব বছরের প্রথম নয় মাসে ১৪টি কোম্পানি গত হিসাব বছরের তুলনায় বেশি মুনাফা করেছে এবং ১৫টি কোম্পানি গত হিসাব বছরের তুলনায় কম মুনাফা করেছে। যেসব কোম্পানির মুনাফায় ঊর্ধ্বগতি রয়েছে, সেসব কোম্পানির লভ্যাংশ নিয়ে বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা বাড়ছে।

অন্যদিকে, যেসব কোম্পানির মুনাফা কমে গেছে, সেসব কোম্পানির লভ্যাংশ নিয়ে বিনিয়োগকারীরা শংকার মধ্যে রয়েছেন।

মুনাফা বৃদ্ধি পাওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো- রেনেটা, ইস্টার্ন লুব্রিকেন্ট, স্টাইলক্রাপ্ট, পদ্মা ওয়েল, যমুনা ওয়েল, মেঘনা পেট্রোলিয়াম, স্কয়ার ফার্মা ও ফার্মা এইড। উৎপাদন এবং মুনাফা বৃদ্ধির গতিতে রয়েছে সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড।

আর মুনাফা কমে যাওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো- এসিআই, এসিআই ফর্মুলেশন, এ্যাপেক্স ফুটওয়ার, জেমিনি সী ফুড, আইসিবি ও নর্দার্ন জুট।

অন্যদিকে, শাহাজীবাজার পাওয়ার নতুন একটি কোম্পানির সাথে মূলধনী অংশীদারিত্বে যুক্ত এবং স্টাইলক্রাপট অনুমোদিত মূলধন বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে। দুই কোম্পানিকে ঘিরেও বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা বাড়ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here