মালয়েশিয়ান মার্কেটের অনুসরণের ওটিসিতে আসবে পরিবর্তন

0
519

স্টাফ রিপোর্টার: ওভার দ্য কাউন্টার (ওটিসি) মার্কেটকে ঢেলে সাজাতে মালয়েশিয়ান মার্কেটের প্রাক্টিসকে অনুসরণ করতে চায় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। তবে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট মাথায় রেখেই ওটিসি রুলস – ২০১৮ পুনর্বিবেচনা করা হবে বলে জানা গেছে।

এদিকে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির প্রতিনিধি ইতোমধ্যে মালেয়শিয়া এবং ফিলিপাইন এক্সচেঞ্জ পরিদর্শন করে এসেছে। তবে ফিলিপাইনের তুলনায় মালয়েশিয়ার মার্কেটের প্রাক্টিস অনেক ভালো বলে মনে করছে বিএসইসি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ওটিসি মার্কেটের উন্নয়নে মালয়েশিয়ান মার্কেটের প্রাক্টিসকে বিবেচনায় থাকলেও দেশীয় মার্কেটের প্রেক্ষাপটকে মাথায় রেখে রুলস জারি করা হবে। এর জন্য ওটিসি মার্কেটের নামেও আসতে পারে পরিবর্তন। তবে কি নামে করা হবে এটা এখনও ঠিক হয়নি। ‘ওটিসি বুলেটিন বোর্ড’ নামে একটি প্রস্তাবও করা হয়েছে বলে জানা যায়।

তবে ওটিসির ওই নতুন বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত হতে হলে কোম্পানিগুলোকে অবশ্যই ডিম্যাট হতে হবে। এই শর্তপূরণ না করা পর্যন্ত কোনো কোম্পানিকে নতুন বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করা হবে না। আর যেসব কোম্পানি এখনও কাগুজে শেয়ার হিসেবে লেনদেন হচ্ছে তাদের ডিম্যাট হওয়ার জন্য নির্ধারিত সময় বেঁধে দেওয়া হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ডিম্যাট করা সম্ভব না হলে ওই সব কোম্পানিকে ওটিসি থেকে ডি-লিস্টেড করা হবে।

আরও জানা যায় নতুন বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত হতে হলে নূন্যতম ১ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধন থাকতে হবে। যেসব কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ১ কোটি টাকার নিচে রয়েছে তারাও শর্ত পূরণ না করা পর্যন্ত নতুন বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত হতে পারবে না।

এদিকে ডিএসই সূত্র বলছে, দিন দিন ওটিসি মার্কেটের কোম্পানিগুলোর লেনদেন বাড়ছে। কোম্পানিগুলোর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রিপোর্ট প্রদানে কড়াকড়িতে গতি এসেছে লেনদেনেও।

গত বছরে ৩ থেকে ৪টি কোম্পানির নিয়মিত লেনদেন হলেও চলতি বছরের শুরু থেকে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে  ৯ থেকে ১০টি। গত ফেব্রুয়ারিতে লেনদেন হয়েছে ৯ টি কোম্পানির ৯ লাখ ৩৯ হাজার শেয়ার। যার বাজার মূল্য ছিল ৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। আর চলতি মাসের প্রথমার্ধে লেনদেন হয়েছে ১০টি কোম্পানির ৬৮ হাজার ৫৮৯টি শেয়ার। যার বাজার মূল্য ৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা।

ওটিসি মার্কেটে বর্তমানে ৬৫টি কোম্পানি রয়েছে। এর মধ্যে ১৩টি কোম্পানির শেয়ার ডিম্যাট হয়েছে। বাকি ৫২টি কোম্পানির শেয়ার এখনও কাগুজে শেয়ারেই রয়ে গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here