মবিল যমুনা বাংলাদেশের মুনাফা বৃদ্ধি

0
537

স্টাফ রিপোর্টার : মবিল যমুনা বাংলাদেশের (এমজেএল বিডি) বাংলাদেশের সমন্বিত নিট মুনাফা বেড়েছে। গত ৯ মাসে (জুলাই,১৭-মার্চ,১৮)  কোম্পানিটি কর পরবর্তী সমন্বিত মুনাফা করেছে ৬৭৮ মিলিয়ন টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৫৯২ মিলিয়ন টাকা। সেই হিসাবে আলোচ্য সময়ে সমন্বিত নিট মুনাফা বেড়েছে ১৪ দশমিক ৫২ শতাংশ।

তবে অর্ধবার্ষিকীতে কোম্পানির কর পরবর্তী মুনাফা ছিল ৪৫৫ মিলিয়ন টাকা। সোমবার কোম্পানির  ম্যানেজমেন্ট আনুষ্ঠানিকভাবে ৯ মাসের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

অনুষ্ঠানে কোম্পানির কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম মুকুল হোসেন বলেন, এমজেএল বিডি শিল্পখাতের গ্রাহকদের জন্য মাল্টি কম্পার্টমেন্ট ডেলিভারি ট্রাকের মাধ্যমে লুব্রিকেটিং অয়েল সরবরাহ শুরু করেছে। গ্রাহকদের সেরা দিতে আমাদের এই উদ্যোগ।

তিনি বলেন, আমরা রূপগঞ্জে একটি ইন্ডাস্ট্রিয়াল কমপ্লেক্সসহ কৌশলগত স্থানে ৫৩ বিঘা জমি ক্রয়ে চুক্তি করেছি। ইন্ডাস্ট্রিয়াল কমপ্লেক্সে গ্যাস সংযোগ রয়েছে। যা আমাদের সহযোগী কোম্পানির ব্যবসাকে এগিয়ে দেবে।

তিনি আরও বলেন, এমজেএল বিডির সহযোগী প্রতিষ্ঠান ওমেরা পেট্রোলিয়ামের রাইট শেয়ারে ৯ দশমিক ৩৭৫ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছি। এই অর্থ দিয়ে কোম্পানিটির  সিলিন্ডার, স্টোরেজ ইক্যুইপমেন্ট, ফিলিং মেশিনারী, বার্জ, রোড ট্যাংকার কেনার পাশাপাশি ব্যাংক ঋণ পরিশোধ করবে। এই কোম্পানির প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এমজেএলের মুনাফা বেড়ে যাবে।

এসময় এমজেএল বিডির প্রধান ফাইন্যান্স এবং প্লানিং কর্মকর্তা সাব্বির আহমেদ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদনের ওপর বক্তব্য রাখেন।

ওমেরা গ্যাস ওয়ান লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শামসুল হক আহমেদ বলেন, চলতি বছরের মার্চে ওজিএলের প্রথম অটো গ্যাস স্টেশন স্থাপন সম্পন্ন হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যে আমরা সারা দেশে ৩০টি অটো গ্যাস স্টেশন স্থাপন সম্পন্ন করতে চাই। আর ২০২০ সালের মধ্যে ২০০টি অটো গ্যাস স্টেশন স্থাপন করতে চাই।

তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় ছিল ২ টাকা ১৩ পয়সা। যা গত বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৯৬ পয়সা। আর গত ৯ মাসে (জুলাই,১৭-মার্চ,১৮) সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ৫ টাকা ১২ পয়সা যা গত বছরের একই সময়ে ছিল ৫ টাকা ১১ পয়সা।

আর ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির সমন্বিত শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য হয়েছে ৩৫ টাকা ৬৩ পয়সা।

২০১১ সালে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির মোট শেয়ারের ৭১ দশমিক ৫৩ শতাংশ শেয়ার রয়েছে উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে। বাকি শেয়ারের ১৫ দশমিক ৩৬ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী, দশমিক ৮৪ শতাংশ বিদেশি বিনিয়োগকারী এবং ১২ দশমিক ২৭ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here