বেক্সিমকো ফার্মার নুভিস্তা ফার্মা অধিগ্রহণ সম্পন্ন

0
325

স্টাফ রিপোর্টার : নুভিস্তা ফার্মার বেশিরভাগ শেয়ার (শতকরা ৮৫.২২ভাগ) অধিগ্রহণ সম্পন্ন করেছে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। নুভিস্তা ফার্মা পূর্বে অরগানন বাংলাদেশ লিমিটেড নামে পরিচিত ছিল। কোম্পানিটি হরমোন এবং স্টেরয়েড ওষুধ প্রস্তুতকারি কোম্পানিগুলোর মধ্যে ছিল অনত্যম।

প্রস্তাবিত অধিগ্রহণে ২০১৭ সালের ৫ অক্টোবর উভয় কোম্পানি শর্তহীন সমঝোতা চুক্তি শেষে চলতি বছরের ১৮ জানুয়ারি চুক্তি সম্পন্ন করতে একমত হয়। বর্তমানে নুভিস্তা ফার্মায় সরকারের ১২.৯২ ভাগ শেয়ার রয়েছে।

বাংলাদেশে ওষুধ শিল্পের ইতিহাসে এটি প্রথম অধিগ্রহণ। ঘটনাটাকে স্মরণীয় করে রাখতে গত সোমবার রাজধানীর রেডিসন ব্লু’ তে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী দেশের অর্থনীতিতে ওষুধ শিল্পের অবদানের জন্য এই শিল্পের সাথে জড়িত সকলের ভূয়সী প্রশংসা করেন। এছাড়া এই শিল্পের রপ্তানী বিকাশে সরকারের নানাবিধ সহযোগিতার কথাও উল্লেখ করেন তিনি।

এছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বেক্সিমকো গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান, বেক্সিমকো ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান এবং নুভিস্তা ফার্মার চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আখতার মতিন চৌধুরী। এ সময় সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, ব্যাংক, ওষুধ শিল্প, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর, বেক্সিমকো ফার্মা এবং নুভিস্তা ফার্মা’র কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বেক্সিমকো ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান বলেন, আমাদের প্রবৃদ্ধির কৌশল হিসেবে, বাংলাদেশের ওষুধ শিল্পের ইতিহাসে প্রথম অধিগ্রহণ সম্পন্ন করতে পেরে আমরা গর্বিত। নুভিস্তা অধিগ্রহণের মাধ্যমে আমাদের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত হবে এবং হরমোন এবং স্টেরয়েড মার্কেটে আমাদের অবস্থান দৃঢ় হবে। নুভিস্তার মৌলিক ওষুধগলো আমাদের পণ্যের সমাহার বৃদ্ধি করবে এবং নিকট ভবিষ্যতে রাজস্ব বাড়বে।

একীভূতকরণ বা অধিগ্রহণ বর্তমান করপোরেট জগতে জনপ্রিয় এবং ফলপ্রসু কৌশল। এর মাধ্যমে উভয় কোম্পানির সিনার্জির কারণে প্রতিযোগিদের চেয়ে এগিয়ে থাকা যায়। এর মাধ্যমে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি পায়, খরচ কমে, বাজারের আকার বড় হয়, দ্রুত প্রবৃদ্ধি অর্জন সম্ভব হয় এবং বিকল্প ব্যবসার দ্বার উন্মোচন হয়। সারা বিশ্বে ২০১৭ সালে তিন ট্রিলিয়ন ডলারের একীভূতকরণ কিংবা অধিগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে, এর মধ্যে ওষুধ শিল্পের পরিমাণ প্রায় দশ ভাগ।

বেক্সিমকো ফার্মা দেশের শীর্ষস্থানীয় ওষুধ উৎপাদন ও রপ্তানীকারক প্রতিষ্ঠান। বিশ্বের ৫০টিরও বেশি দেশে বর্তমানে বেক্সিমকো ফার্মা ওষুধ রপ্তানী করছে। বাংলাদেশের প্রথম এবং একমাত্র কোম্পানি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে ওষুধ রপ্তানি করছে বেক্সিমকো ফার্মা।

ইউএস এফডিএ ছাড়াও এজিইএস (ইউরোপীয় ইউনিয়ন), টিজিএ (অস্ট্রেলিয়া), হেলথ কানাডা, জিসিসি (গালফ) এবং টিএফডিএ (তাইওয়ান) এর স্বীকৃতি রয়েছে কোম্পানিটির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here