বৃহস্পতিবার ৮ কোম্পানির দ্বিতীয় প্রান্তিক প্রকাশ

0
1846

স্টাফ রিপোর্টারঃ ৮টি কোম্পানির দ্বিতীয় প্রান্তিকের (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ২০১৭) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। নিম্নে কোম্পানিগুলোর শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) এবং শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) তুলে ধরা হলঃ

জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশনস লিমিটেডঃ দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ২৭ পয়সা যা গত বছর একই সময় ছিল ১০ পয়সা। আয় বেড়েছে ১৭০ শতাংশ।

তাছাড়া ৩১ ডিসেম্বর তারিখে কোম্পানির এনএভি হয়েছে ১২ টাকা ১২ পয়সা।

সমতা লেদার কমপ্লেক্স লিমিটেডঃ দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০২১ পয়সা যা গত বছর একই সময় ছিল ০৩৮ পয়সা। এদিকে বছর শেষে কোম্পানির এনএভি হয়েছে ১৪ টাকা ৪৬ পয়সা।

আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডঃ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৩৯ পয়সা। গত বছর যা ছিল ৭৫ পয়সা। আয় বেড়েছে ৮৫ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

এ সময় কোম্পানির এনএভি হয়েছে ১৬ টাকা ১৮ পয়সা।

এপেক্স ট্যানারি লিমিটেডঃ ফেয়ার ভ্যালুয়েশন সারপ্লাস ছাড়া কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ৩২ পয়সা যা গত বছর একই সময় ছিল ১ টাকা ৭৩ পয়সা। দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির আয় প্রায় ৮২ শতাংশ কমেছে।

বছর শেষে কোম্পানির এনএভি হয়েছে ৬৯ টাকা ৮২ পয়সা।

বারাকা পাওয়ার লিমিটেডঃ দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ৫০ পয়সা যা গত বছর একই সময় ছিল ৬৪ পয়সা। এদিকে কোম্পানির এনএভি হয়েছে ১৮ টাকা ২১ পয়সা।

মেঘনা সিমেন্ট মিলস লিমিটেডঃ দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১৭ পয়সা যা আগের বছর হয়েছিল ০৭ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর তারিখে কোম্পানির এনএভি হয়েছে ৩৫ টাকা ১০ পয়সা।

গোল্ডেন সন লিমিটেডঃ প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত লোকসান হয়েছে ৩৬ পয়সা যা গত বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ১৪ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর তারিখে কোম্পানির এনএভি হয়েছে ২২ টাকা ৩৬ পয়সা।

মুন্নু জুট স্টাফলারস লিমিটেডঃ এ সময় কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ০৭ পয়সা যা গত বছর একই সময় ছিল ১২ পয়সা। অনিরীক্ষিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির আয় প্রায় ৭৯১ শতাংশ বেড়েছে।

৩১ ডিসেম্বর তারিখে কোম্পানির এনএভি হয়েছে ৪৬ টাকা ৯৬ পয়সা।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here