বৃহস্পতিবার প্রকৌশল খাতে সর্বাধিক লেনদেন

0
240

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে বৃহস্পতিবার, ১৮ মে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে প্রকৌশল খাতে। সূচক দিন শেষে আগের দিনের তুলনায় অনেক নিচে অবস্থান করছে। ফলে লেনদেনে ের প্রভাব পড়েছে। সেই কারণে  বেশির ভাগ খাতে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কম হয়েছে । তবে তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে প্রকৌশল খাতে। আগের দিনের তুলনায় এই খাতে ট্রেড বেড়েছে অনেক পরিমাণ। তুলনামুলক ভাবে অন্যান্য খাতের চেয়ে ক্যাশ ফ্লো ও লেনদেন বেশি হয়েছে।

লেনদেনের ভিত্তিতে দেখলে আজকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে ছিল টেক্সটাইল খাত এবং ব্যাংকিং খাত। তবে অন্য দিনের তুলনায় উভয় খাতেই লেনদেন কম হয়েছে। তুলনামুলক ভাবে মার্কেটের বাকি খাতগুলোর চেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে উভয় খাতেই। তাই বলা যেতে পারে যে অন্য খাতগুলো থেকে অর্থের প্রবাহ এই খাতগুলোতে বেশি হয়েছে।

প্রকৌশল খাত : প্রকৌশল খাত বুধবার সবচেয়ে ভাল অবস্থানে দিন শেষ করেছে। প্রকৌশল খাতে মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ১২৫.২ কোটি টাকার মত যা আগের দিনের তুলনায় ৪.৭০ কোটি টাকা বেশি। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে বিনিয়োগ হ্রাস পেয়েছে ৩.৯০%। মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১৯.৭১%।

এই খাতে লেনদেন হওয়া ৩৩ টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১২টি এবং কমেছে ২১ টি কোম্পানির।

এই খাতে সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল রংপুর ফাউন্ড্রি লিমিটেডের। এই কোম্পানির শেয়ার প্রতি ১২৮ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় ৫.৯৬% বেশি। অন্যদিকে এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল কায় এন্ড কিউ প্রতিষ্ঠানের যা ৫২.৩ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় ৭.৩% কম।

টেক্সটাইল খাত  :  লেনদেনের ভিত্তিতে টেক্সটাইল খাত দ্বিতীয় অবস্থানে দিন শেষ করেছে। টেক্সটাইল খাতে মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ১০০.১ কোটি টাকার মত যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৪.১০ কোটি টাকার মত কম। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে বিনিয়োগ বেড়েছে ৩.৯৩%। মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১৫.৭৬%।

লেনদেন হওয়া ৪৭টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৭টি, কমেছে ৩৩ টি কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত  ছিল ৭টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল রহিম টেক্সটাইলসের । এই শেয়ারটি ৩২.৭ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৩.৮১% বেশি। অন্যদিকে এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল রিজেন্ট টেক্সটাইলসের যা ২৮.২ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় ৯.৬২% কম।

ব্যাংকিং খাত :  লেনদেনের ভিত্তিতে ব্যাংকিং খাত তৃতীয় অবস্থানে দিন শেষ করেছে। মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ৬৭.৮ কোটি টাকা যা আগে দিনের তুলনায় ৪.৮০ কোটি টাকার মত কম। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে লেনদেন বৃদ্ধি পেয়েছে ৬.৬১% । মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১০.৬৭%।

লেনদেন হওয়া ২৯ টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে মাত্র ৬টি, কমেছে ১৯ টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪ টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল ট্রাস্ট ব্যাংকের যা দিন শেষে ২৪.২ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে। আগের দিনের তুলনায় কোম্পানিটির দাম প্রায় ০.৮৩ % বেশী।  এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল এনবিএল ব্যাংকের যা ৩.৭৩% হ্রাস পেয়ে ১২.৯ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here