‘বীমা খাত শক্তিশালী হলে অর্থনীতির অগ্রগতি হবে’

0
956

বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এ্যাসোসিয়েশন (বিআইএ) প্রেসিডেন্ট শেখ কবির হোসেন বলেছেন, দেশের বীমা খাত শক্তিশালী হবে অর্থনীতির আরো অগ্রগতি হবে। তবে যেভাবে দেশের বীমা খাতের অগ্রগতি ও প্রচার হওয়ার কথা ছিল সেটি যথাযথভাবে হয়নি। সোমবার বিআইএ সম্মেলন কক্ষে ইন্স্যুরেন্স রিপোর্টাস ফোরাম (আইআরএফ) নেতৃবৃদ্ধের সঙ্গে এক সৌজন্য স্বাক্ষাতে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কর্ণফুলি ইন্স্যুরেন্স কোম্পািনর ভাইস প্রেসিডেন্ট নাসির উদ্দিন আহমেদ পাভেল, রূপালী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি সিইও পি কে রায়, প্রাইম লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির এমডি কাজী মোরতোজা আলী, আইআরএফ আহবায়ক গোলাম সামদানি, সদস্যসচিব গাযী আনোয়ার, আশরাফুল ইসলাম, মনির হোসেনসহ অন্যান্য সদস্যরা।

শেখ কবির হোসেন বলেন, দেশের অনেক ভবন রয়েছে যেগুলোর কোনো বীমা আছে কিনা তা জানা নেই। তবে ভবনের বিপরীতে আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নেয়ার সময় ভবনগুলোর বীমা করতে হয়। কিন্ত ভবন সম্পূর্ন হওয়ার পর বীমার কার্যক্রমটি যথাযথভাবে পরিপালন করা হয় না। ফলে এক্ষেত্রে ঝুঁকি থেকেই যায়। এজন্য দেশের বড় বড়  স্থাপনাগুলোর বাছাই করে সেগুলোর বাধ্যতামূলক বীমা করতে হবে। সকল স্থাপনাগুলোকে বীমার আওতায় আনা হলে দুর্ঘটনার পর আর্থিক সংকট হতো না।

তিনি বলেন, প্রতিনিয়ত অভিযোগ করা হয় লাইফ ইন্স্যুরেন্সগুলো বীমা দাবি পরিশোধ করে না। কিন্ত বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে দেখলেই বোঝা যেত, প্রতি বছর কি পরিমাণ বীমা দাবি পরিশোধ করা হয় আর এর বিপরীতে কি পরিমাণ দাবী নিষ্পত্তির বাইরে থাকে।

আইআরএফ’র নেতৃবৃদ্ধের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সাংবাদিকদের বীমা সম্পর্কে যথাযথ ধারণা প্রদানে বিআইএ পক্ষ থেকে সকল ধরনের সহযোগিতা করা হবে। একই সঙ্গে বীমা সম্পর্কিত যে সব প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয় সেখানে ফোরামের সদস্যদের বিনামূল্যে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে। বিজ্ঞপ্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here