বিনিয়োগকারী ও ট্রেডার্স ‘এগিয়ে চল একসাথে’

0
1603

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : বিনিয়োগকারী এবং ট্রেডার্স একই সুতায় গাঁথা। বিনিয়োগকারী বেঁচে থাকলে ট্রেডার্স বেঁচে থাকবে। ভবিষ্যতে বিনিয়োগকারীদের অধিকার সংরক্ষণ ও সর্বোচ্চ সেবা দেয়ার অঙ্গীকার নিয়েই আমরা একত্রিত হয়েছি। দলাদলি থেকে দূরে থেকে সবাই এক সাথে মিলেমিশে কাজ করতে পারলে পুঁজিবাজার আবারও ঘুরে দাড়াতে পারবে।

চিটাগং ক্লাবে মঙ্গলবার রাতে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট রেজিস্টার্ড ট্রেডার্স এসোসিয়েশন (বিসিএমআরটিএ) ১৫০ টিরও বেশি সিকিউরিটিজ হাউজের পাঁচশতাধিক সদস্য।

‘এগিয়ে চল একসাথে’ স্লোগান নিয়ে প্রথমবারের মতো আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে চট্টগ্রামের সিকিউরিটি হাউজের রিপ্রেজেনটেটিভদের সংগঠন বিসিএমআরটিএ।

লঙ্কা বাংলা সিকিউরিটিজ এর জিএম আমির হোসেন বলেন, ২০১০ সালে পুঁজিবাজারে যে ধস নেমেছিল তা থেকে উত্তরণে চট্টগ্রাম ক্যাপিটাল মার্কেটের ভূমিকা ছিল উল্লেখযোগ্য। শেয়ারবাজারকে স্থিতিশীল মার্কেটে পরিণত করতে তরুণদের একসাথে হয়ে কাজ করতে হবে। তরুণরা যদি প্রত্যেক দিনকে নতুন একটি দিন হিসেবে মনে করে কাজ করে, তাহলে শুধু ক্যাপিটাল মার্কেট হয় পুরো বাংলাদেশের চেহারাই বদলে যাবে।

ফিনিক্স সিকিউরিটিজ লিমিটেডের এভিপি এম আলমঙ্গীর চৌধুরী, চিটাগং ক্যাপিটাল লিমিটেডের এজিএম দীপক কুমার, সিটি ব্রোকারেজের আলমগীর পাটোয়ারী, বিসিএমআরটিএর সদস্য সচিব আনোয়ার শাহাদাৎ মিঠু, ঈদ পুনর্মিলনী উদযাপন কমিটির আহবায়ক শেখ মনির আহমদ, চিটাগং ক্যাপিটাল লিমিটেডের এ কে এম জসিম উদ্দিন, সদস্য আমিরুল ইসলাম রনি উপস্থিত ছিলেন।

অরজিৎ ভট্টাচার্য্য ও জোবাইদা গুলশান আরা সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন সিটি ব্রোকারেজের রিপ্রেজেনটেটিভ ফুরকান চৌধুরী, ভিশন ক্যাপিটাল লিমিটেডের জিয়া উদ্দিন বাবু এবং কৌতুক পরিবেশন করেন লঙ্কা বাংলা সিকিউরিটিজের আবদুল জলিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here