বিনিয়োগকারীর স্বার্থকে প্রাধান্য দেবে নিউ লাইন ক্লোথিংস

0
783

মোহাম্মদ তারেকুজ্জামান : নিউ লাইন ক্লোথিংস লিমিটেড প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) পুঁজিবাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পেয়েছে। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) গত মঙ্গলবার, ২৭ নভেম্বর অনুমোদন দেয়।

কোম্পানিটি আইপিওর মাধ্যমে ৩ কোটি সাধারণ শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা।

গার্মেন্ট পণ্য উৎপাদন করা কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে আসার পর সাধারণ বিনিয়োগকারীদের স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে চায়। সাধারণ বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ যেন ক্ষুণ্ন না হয় বিষয়টি সতর্কতার সঙ্গে পর্যালোচনা করবে কোম্পানির কর্তৃপক্ষ।

শতভাগ রপ্তানিকারক কোম্পানিটি বিভিন্ন প্রকারের গার্মেন্টস উৎপাদন করে থাকে। তার মধ্যে রয়েছে- লেডিস, জেন্টসদের জন্য জ্যাকেট এভং শিশুদের বিভিন্ন প্রকারের কাপড়। ছেলে-মেয়ে উভয়ের জন্য রয়েছে জিন্স পোশাক।

এসব পণ্য জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ড ও ইউকেতে রপ্তানী করা হয়। নিউ লাইন ক্লোথিংস লিমিটেডের চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) শরিফ আহমেদ স্টক বাংলাদেশকে এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, অনেক কোম্পানি জবাবদীহিতা, সচ্ছতা এবং ব্যবসায়িক অবস্থা ভালো দেখিয়ে পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত হয়। কিন্তু পুঁজিবাজারে আসার পর শতভাগ জবাদীহিতা, সচ্ছতা এবং মুনাফা ধরে রাখতে পারে না। তবে আমরা ধরে রাখার চেষ্টা করবো।

 তিনি আরো বলেন, বছর শেষে তারা সাধারণ বিনিয়োগকারীদের ডিভিডেন্ড দেয় না। ওই সব কোম্পানি বাজারে আসেই মূলত সাধারণ বিনিয়োগকারীদের পকেট খালি করার জন্য। তারা নিজেদের পকেট ভারী করে বাজারে নামমাত্র মূল্যে থাকে। কোম্পানির ক্যাটাগরি সর্বনিম্ন স্তরে চলে যায়। কিন্তু নিউ লাইন ক্লোথিংস লিমিটেড ওই সব কোম্পানির মতো হবে না বলে জানান তিনি। 

তথ্যমতে, আইপিওর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থ দিয়ে কোম্পানির যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয় এবং কারখানা ভবন সম্প্রসারণ, মেয়াদী ঋণ পরিশোধ এবং আইপিও খাতে খরচ করবে।৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির বেসিক শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৮৫ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানির পুনঃমূল্যায়নসহ নিট সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৩১ টাকা ৬৩ পয়সা এবং সম্পদ পুনঃমূল্যায়ন ছাড়া এনএভি হয়েছে ২০ টাকা ৫২ পয়সা।

উল্লেখ্য, ইস্যু ম্যনেজার হিসেবে রয়েছে- বানকো ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, সন্ধানী লাইফ ফাইন্যান্স লিমিটেড এবং সাউথইস্ট ব্যাংক ক্যাপিটাল সার্ভিসেস লিমিটেড।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here