বিনিয়োগকারীদের ১২ দফা দাবি, অনশন ভাঙালেন মেনন

0
465
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সামনে গণঅনশনরত বিনিয়োগকারীরা

সিনিয়র রিপোর্টার : রাজধানীর মতিঝিলে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সামনে গণঅনশনরত বিনিয়োগকারীদের জুস খাইয়ে অনশন ভাঙালেন বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি এবং ঢাকা-৮ আসনের সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন। এ সময় পুঁজিবাজারের ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের রক্ষার দায়িত্ব নেয়ার জন্য অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালকে আহ্বান জানান তিনি।

পুঁজিবাজারে অব্যাহত দরপতনের প্রতিবাদে ও ১২ দফা দাবিতে সোমবার বেলা ১১টা থেকে ‘বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ’-এর ব্যানারে প্রতীকী গণঅনশন শুরু করেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা।

বেলা ২টায় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সামনে উপস্থিত হয়ে বিনিয়োগকারীদের গণঅনশনের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন রাশেদ খান মেনন। এরপর বেলা আড়াইটায় বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান-উর রশিদ চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাককে জুস খাইয়ে গণঅনশন ভাঙান তিনি।

বিনিয়োগকারীদের গণঅনশনের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন রাশেদ খান মেনন

এ সময় পুঁজিবাজার নিয়ে অর্থমন্ত্রীর করা মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে মেনন বলেন, আপনি বলেছেন, পুঁজিবাজার সিংহ-ছাগলের খেলা। এখানে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা যদি ছাগল হয়, তাহলে তাদের রক্ষার দায়িত্ব সরকারের।

অর্থমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে মেনন আরো বলেন, আগামী বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য প্রণোদনা থাকবে। কিন্তু কতটা থাকবে সে বিষয়ে সবাইকে অবগত করুন।

সাধারণ বিনিয়োগকরীদের ব্যানারে আন্দোলনরত সংগঠনটির ১২ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- বিএসইসির চেয়ারম্যানের পদত্যাগ, প্রতিটি কোম্পানির শেয়ারের অভিহিত মূল্যের নিচে যে শেয়ারগুলো রয়েছে সেগুলোকে বাইব্যাক করা, পুঁজিবাজারে জেড ক্যাটাগরি ও ওটিসি মার্কেট বলে কিছু থাকবে না।

আরো রয়েছে- বাজারে শেয়ারের কোনো বিভাজন না, দুর্বল কোম্পানির আইপিও প্লেসমেন্ট শেয়ারের অবৈধ বাণিজ্য বন্ধ করা, ইব্রাহিম খালেদের তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী দোষীদের আইনের আওতায় এনে বিচারের ব্যবস্থা করা এবং প্রতিটি কোম্পানিকে বছরে কমপক্ষে ১০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here