বিক্রয় চাপে বুধবার মার্কেটে বেয়ারিশ ক্যান্ডেল স্টিক

0
866
স্টাফ রিপোর্টার :  ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ইনডেক্স মঙ্গলবার, ১২ জুলাই  মার্কেটে বেয়ারিশ ক্যান্ডেল দেখা গেছে। মার্কেটে শুরু থেকেই বিক্রেতাদের প্রভাব বেশি ছিল। সেই কারণে দর পতন হয় অনেক কোম্পানির। তাই ধীরে ধীরে নিচে নেমে আসে মার্কেট।  । শেষ পর্যন্ত প্রারম্ভিক মুল্যের চেয়ে কয়েক সূচক নিচে সমাপ্ত হয়েছে মার্কেট।
টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস অনুযায়ী ডিএসইএক্স ইনডেক্স লেনদেনের শুরু থেকেই হ্রাস পেতে থাকে।  দিনের শুরু থেকে বিক্রয় চাপ দেখা যায়। বেলা বাড়ার সাথে সাথে বিক্রয় চাপ বৃদ্ধি পেতে থাকে এবং দিনশেষে সূচক  ৪০ পয়েন্টের মত হ্রাস পেয়েছে। সূচকের এ দর পতনের ফলে আজকের ক্যান্ডেলস্টিক একটি বেয়ারিশ ক্যান্ডেলস্টিক ছিল। গত দিনের ডোজি ক্যান্ডেলের পর এই বেয়ারিশ ক্যান্ডেল মার্কেটে রিভারসালের সংকেত দিচ্ছে। তবে আগামী দিন ভাল ক্রয় চাপ থাকলে আবার মার্কেট ঘুরে দাড়াতে পারে।
ডিএসই সাধারন সূচক দিন শেষে আগের চেয়ে কয়েক পয়েন্ট নিচে আছে। দিন শেষে ইনডেক্স গত দিনের চেয়ে ৩৯.৯৮ পয়েন্ট উপরে অবস্থান করছে। ইন্ডেক্স বিগত দিনের ৫৮৩০.৭৭ পয়েন্ট থেকে শুরু করে ৫৭৯০.৭৮ পয়েন্টে শেষ হয় যা আগের দিনের তুলনায় ০.৬৮% কম।
বাজারে সর্বমোট ৩৩০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মধ্যে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ৬৫ টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার এর, হ্রাস পেয়েছে ২৩২টির আর অপরিবর্তিত ছিল ৩৩টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। আজকের মোট লেনদেনের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯১৪.২ কোটি টাকায় আর মোট লেনদেন হয়েছে      ১ লক্ষ ৪৩ হাজার ৭৮০টি শেয়ার।
পরিশোধিত মূলধনের দিক থেকে দেখা যায়, বেশিরভাগ শেয়ারের লেনদেন কমেছে। দেখা যাচ্ছে ৫০ থেকে ১০০ কোটি টাকার শেয়ার এবং ২০ থেকে ৫০ কোটি টাকার বেশি মূলধনী প্রতিষ্ঠানের লেনদেন কমেছে ১৮.৫৯% এবং ২৭.৮৩%। সেই সাথে ১০০ থেকে ৩০০ মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কমেছে ৩২.১%। সেই সাথে ৩০০ কোটি অধিক টাকা পরিশোধিত মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের ট্রেড কমেছে ৩৪.১৫%।
পিই রেশিওর ভিত্তিতে দেখলে দেখা যায় ট্রেড কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির। দেখা যাচ্ছে ০-২০ পিই রেশিওর শেয়ারের লেনদেন কমেছে ৩৩.০৩%। তবে ৪০ এর বেশি পিই রেশিওর শেয়ারের ট্রেড কমেছে ৩৯.৬৮%। তবে ২০-৪০ পিই রেশিওর শেয়ারের লেনদেন কমেছে ২২.৮৬%।
ক্যাটাগরির দিক থেকেও দেখা যায় লেনদেন কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির। এ এবং বি ক্যাটাগরি লেনদেন কমেছে ৩১.৪৩ এবং ৩১.১৩ শতাংশ। সেই সাথে জেড ক্যাটাগরির লেনদেন কমেছে ২০.৯৬ শতাংশ। তবে এন ক্যাটাগরির লেনদেন বেড়েছে ৩.৬১ শতাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here