বিএসইসির ১২টি কোম্পানির শাস্তিমূলক ব্যবস্থার সিদ্ধান্ত

0
1535

স্টাফ রিপোর্টার : পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) তদন্তে ১২টি কোম্পানির শেয়ার মূল্য নিয়ে ৬ অসাধু বিনিয়োগকারীর কারসাজি বিষয় উঠে এসেছে। শেয়ারের মূল্য বাড়াতে তা সংশ্লিষ্ট একাধিক কোম্পানির মূল্য সংবেদনশীল তথ্য আগাম সংগ্রহ করে তার ভিত্তিতে লেনদেন, সিরিজ ট্রেডিং ইত্যাদি কৌশলের আশ্রয় নিয়েছেন। এই কারসাজির এই অপরাধে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

১২ সেপ্টেম্বর, বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত বিএসইসির কমিশন সভায় এই সদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কমিশন বৈঠকে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট তদন্ত প্রতিবেদনটি বিএসইসির এনফোর্সমেন্ট বিভাগে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়।

যেসব কোম্পানির শেয়ারে কারসাজি করেছে- ইউনাইটেড পাওয়ার, ভিএসএফ থ্রেড, আইপিডিসি ফাইন্যান্স, এস এস স্টিল, ইনটেক লিমিটেড, সায়হাম টেক্সটাইল, সায়হাম কটন, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, মুন্নু সিরামিকস, মুন্নু জুট স্টাফলার, আইসিবি ও ডাচ বাংলা ব্যাংক।

যাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে তারা হলেন, বিশ্বজিত দাস ও তার স্ত্রী, কাজী মোঃ শাহাদাত হোসেন ও তার মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বি অ্যান্ড বিএস ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল,  মোঃ সাইফুল্লাহ, হোসাম মোঃ সিরাজ, এ এস এস আহসান হাবিব চৌধুরী, লুৎফুল গনি টিটু ও তার স্ত্রী এবং তার মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান সাত রং এগ্রো ফিশারিজ লিমিটেড।

শাস্তিমূলক ব্যবস্থা পাশাপাশি আলোচিত বিনিয়োেগকারীদের একাউন্ট থেকে টাকা উত্তোলন ও স্থানান্তর এবং লিংক একাউন্টের মাধ্যমে শেয়ার অন্য প্রতিষ্ঠানে সরিয়ে নেওয়ার সুযোগের উপর স্থগিতাদেশ দিয়েছে বিএসইসি। তবে তারা নিজ নিউ একাউন্টে শেয়ার কেনাবেচা করতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here