বসুন্ধরা পেপারের ভুল তথ্য প্রকাশ!

1
2160

সিনিয়র রিপোর্টার : বসুন্ধরা পেপার মিলসে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ধারণ নিয়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটে ভুল তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। আর এ বিষয়টি নিয়ে ডিএসই ও বসুন্ধরা পেপার মিলস কর্তৃপক্ষ একে অপরকে দোষারোপ করছেন।

কোম্পানিটির বিডিংয়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ৮.৯৯ শতাংশ হারে ১ কোটি ৫৬ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার কিনেছেন। এরমধ্যে ৫০ শতাংশ বা ৭৮ লাখ ১২ হাজার ৫০০ শেয়ার লক-ইন রয়েছে। যা বিক্রয় করা সম্ভব না। তারপরেও ডিএসইর ওয়েবসাইটে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ধারন শূন্য দেখানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এ এম মাজেদুর রহমান বলেন, বসুন্ধরা পেপার থেকে শেয়ার ধারণ বসুন্ধরা পেপার মিলসে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ধারন নিয়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটে ভুল তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। আর এ বিষয়টি নিয়ে ডিএসই ও বসুন্ধরা পেপার মিলস কর্তৃপক্ষ একে অপরকে দোষারোপ করছেন।

কোম্পানিটির বিডিংয়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ৮.৯৯ শতাংশ হারে ১ কোটি ৫৬ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার কিনেছেন। এরমধ্যে ৫০ শতাংশ বা ৭৮ লাখ ১২ হাজার ৫০০ শেয়ার লক-ইন রয়েছে। যা বিক্রয় করা সম্ভব না। তারপরেও ডিএসইর ওয়েবসাইটে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ধারন শূন্য দেখানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেএএম মাজেদুর রহমান বলেন, বসুন্ধরা পেপার থেকে শেয়ার ধারন নিয়ে যে তথ্য দেওয়া হয়েছে, কোম্পানিটির প্রোফাইলে তাই দেখানো হয়েছে। তবে বিষয়টি যেহেতু ভুল, তাই বসুন্ধরার সঙ্গে এ বিষয়ে যোগাযোগ করে সঠিক তথ্য আনার চেষ্টা চলছে।

ডিএসই থেকে নেয়া

বসুন্ধরা পেপার মিলসের সচিব নাসমুল হাই বলেন, শেয়ার ধারন নিয়ে ডিএসইকে সঠিক তথ্য দিয়েছি। তবে ডিএসই কর্তৃপক্ষ কোম্পানির প্রোফাইলে ভুল তথ্য প্রকাশ করেছে।

কোম্পানিটির বিডিংয়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ৮.৯৯ শতাংশ হারে ১ কোটি ৫৬ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার কিনেছে। যেসব শেয়ারের মধ্যে ৫০ শতাংশ বা ৭৮ লাখ ১২ হাজার ৫০০ শেয়ার কোন লক-ইন নেই। তবে বাকি ৫০ শতাংশ শেয়ারে এখনো লক-ইন রয়েছে। এই ৫০ শতাংশ শেয়ারের মধ্যে ২৫ শতাংশে ৬ মাস ও বাকি ২৫ শতাংশে ৯ মাস লক-ইন থাকবে। যা প্রসপেক্টাস প্রকাশের দিন থেকে কার্যকর হবে।

নিয়ে যে তথ্য দেওয়া হয়েছে, কোম্পানিটির প্রোফাইলে তাই দেখানো হয়েছে। তবে বিষয়টি যেহেতু ভুল, তাই বসুন্ধরার সঙ্গে এ বিষয়ে যোগাযোগ করে সঠিক তথ্য আনার চেষ্টা চলছে।

ডিএসই থেকে নেয়া চিত্র

বসুন্ধরা পেপার মিলসের সচিব নাসমুল হাই বলেন, শেয়ার ধারন নিয়ে ডিএসইকে সঠিক তথ্য দিয়েছি। তবে ডিএসই কর্তৃপক্ষ কোম্পানির প্রোফাইলে ভুল তথ্য প্রকাশ করেছে।

কোম্পানিটির বিডিংয়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ৮.৯৯ শতাংশ হারে ১ কোটি ৫৬ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার কিনেছে। যেসব শেয়ারের মধ্যে ৫০ শতাংশ বা ৭৮ লাখ ১২ হাজার ৫০০ শেয়ার কোন লক-ইন নেই।

তবে বাকি ৫০ শতাংশ শেয়ারে এখনো লক-ইন রয়েছে। এই ৫০ শতাংশ শেয়ারের মধ্যে ২৫ শতাংশে ৬ মাস ও বাকি ২৫ শতাংশে ৯ মাস লক-ইন থাকবে। যা প্রসপেক্টাস প্রকাশের দিন থেকে কার্যকর হবে।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here