ফেসভ্যালুর নিচে ২৮টি কোম্পানির শেয়ার দর

1
1525

স্টাফ রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ২৮টি কোম্পানির শেয়ার দর ফেসভ্যালুর নিচে চলে এসেছে। এরমধ্যে ১০ কোম্পানির শেয়ার দর ৫ টাকার নিচে থাকায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেক বিনিয়োগকারী। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটের তথ্যানুসারে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

ডিএসই তথ্যানুসারে, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলস লিমিটেডের বর্তমান শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ৩.৯০ টাকা। এছাড়া ফ্যামিলিটেক্স বিডি’র শেয়ার দর ৪.৮০ টাকা, ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ (বিডি) লিমিটেডের শেয়ার দর ২.৭০ টাকা, ব্যাংকিং খাতের আইসিবি ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার দর ৩.৯০ টাকা, বস্ত্রখাতের তুং-হাই নিটিংয়ের শেয়ার দর ৪.৫০ টাকায়, দ্য ডাক্কা ডাইং এন্ড ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানির শেয়ার দর ৪.৬০ টাকায় দাঁড়িয়েছে।

ফেসভ্যালুর নিচে অবস্থান করা আর্থিক খাতের বাংলাদেশ ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ফিন্যান্স কোম্পানি লিমিটেডের (বিআইএফসি) শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ৫ টাকা।

এছাড়া ফারইষ্ট ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেষ্টমেন্ট লিমিটেডের শেয়ার দর ৪.৯০ টাকা, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেডের শেয়ার দর ৪.৮০ টাকা, তাল্লু স্পিনিং মিলস লিমিটেডের শেয়ার দর ৫.৪০ টাকায় লেনদেন হচ্ছে।

ফেসভ্যালুর নিচে রয়েছে- বেক্সিমকো সিনথেটিকসের শেয়ার দর ৬.২০ টাকা, গোল্ডেন সনের শেয়ার দর ৭.৯০ টাকা, অলটেক্সের শেয়ার দর ৮.১০ টাকা, ফার্স্ট ফাইন্যান্সের শেয়ার দর ৬.৩০ টাকা, আরএন স্পিনিংয়ের শেয়ার দর ৮.৮০ টাকা, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের শেয়ার দর ৯.৮০ টাকা।

তালিকার মধ্যে রয়েছে- ন্যাশনাল ব্যাংকের শেয়ার দর ৮.৮০ টাকা, ডেল্টা স্পিনার্সের শেয়ার দর ৬.২০ টাকা, ফার্স্ট সিকিউরিটিজ ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার দর ৯.৭০ টাকা, ফেডারেল ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর ৮.৮০ টাকা, প্রিমিয়ার লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্স লিমিটেডের শেয়ার দর ৮.৬০ টাকা, কেয়া কসমেটিকসের শেয়ার দর ৭.৪০ টাকা, জেনারেশন নেক্সটের শেয়ার দর ৬.৫০ টাকা।

ফেসভেল্যুর নিচে কোম্পানিগুলোর মধ্যে আরো রয়েছে- জিবিবি পাওয়ারের শেয়ার দর ৮.৮০ টাকা, মেট্রো স্পিনিংয়ের শেয়ার দর ৮.৮০ টাকা, ম্যাকসন স্পিনিংয়ের শেয়ার দর ৮.২০ টাকা, প্রাইম ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেষ্টমেন্টের শেয়ার দর ৯.৬০ টাকা এবং এ্যাপোলো ইষ্পাতের শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ৮ টাকা।

1 COMMENT

  1. ২৮ কোম্পানির শেয়ার দর ফেস ভ্যেলুর নিচে।তন্মধ্যে ইউনাইটেড এয়ারের ভ্যেলু মাত্র ২.৭০টাকা/শেয়ার।কেন? এর শেয়ার সং্খ্যা মাত্র বিরাশি কোটি।এর উদ্যোক্তারা ধারন করছেন মাত্র তিন কোটি।তাহলে এই কোম্পানি র দাম ২.৭০টাকা/শেয়ার হওয়া
    স্বাভাবিক। বিমান উড্ডয়ন বন্ধ।তিন বছর ধরে উড্ডয়নের কথা বলা হচ্ছে।ভাল ভাল সুরেলা নিউজ প্রকাশ করছে।সুরেলা নিউজ হয়ে উঠছে সুরহীনতা। তাসবিরুল সাহেবের মতে এক লাখ বায়ান্ন হাজার বিনিয়োগকারী এই কোম্পানির সাথে জড়িত।এরা অভাগা।এই কোম্পানিতে বিনিয়োগ করে নি:স্ব। এদের স্বপ্ন ভেংগে চৌচির।তিন বছর ধরে বিভিন্ন কোম্পানির সাথে চুক্তির কথা বলা হচ্ছে। এখন কখন যে ইউনাইটেড এয়ারের বায়ু বের হয়ে যায় সেই চিন্তায় বিনিয়োগকারীরা উদ্বিগ্ন। BSEC and DSE কে অন্ধকারে বা পাশ কাটিয়ে কিভাবে এরা সব মধু খেয়ে মধু বিহীন চাক সাধারন বিনিয়োগকারীদের কাধে চাপাল? অথচ BSEC and DSE নিয়ন্ত্রনকারী সংস্থা।এই কোম্পানি যদি গোল্লায় যায় বা বন্ধ হয়ে যায় তাহলে উদ্যোক্তাদের তেমন ক্ষতি হবে না।কিন্ত সাধারন বিনিয়োগকারীরা নি:স্ব হয়ে যাবে।এই কোম্পানির vision, mission and goal কি তা জানা মুশকিল।বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে বিমান শিল্পের সম্ভাবনা উজ্বল। কিন্তু এই কোম্পানির কোন সফলতা নেই।শুধুই ব্যর্থতা। নেটে এই কম্পানির শুধু ব্যর্থতার সংবাদ পাওয়া যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here