শ্যামল রায়: কাজী আহসান হাবীব। একজন শেয়ার বাজার বিশ্লেষক। কাজ করছেন ইবিএল সিকিউরিটিজের মার্কেটিং হেড হিসেবে। তার দীর্ঘ ব্যবসায়ীক অভিজ্ঞতা এবং শেয়ার বাজার সম্পর্কে বস্তুনিষ্ট জ্ঞান ইবিএল সিকিউরিটিজ লিমিটেডকে করেছে অনেক সমৃদ্ধ। শেয়ার বাজার নিয়ে তার সুচিন্তিত বিশ্লেষন তুলে ধরলেন স্টক  বাংলাদেশের পাঠকদের উদ্দেশ্যে।

সাম্প্রতিক বিবেচনায় আমাদের শেয়ার বাজার মোটা মুটি ভালই বলা চলে। কারণ অতীতের যে কোন সময়ের থেকে বাজার অনেকটা স্থিতিশীল। নানা রকম পদক্ষেপের কারণে মার্কেটে অনেক চেঞ্জ এসেছে। বাজার উন্নয়নের জন্য অনেকগুলো কাজ হয়েছে, কিছু কাজ এখনো প্রক্রিয়াধীন। যদিও এবছর বাজার ভাল হতে নিয়েও ৫/৬ বার হোচট খেয়েছে কিন্তু ওভারঅল ভাল বলা যায়। বিনিয়োগকারীদের মধ্যে কনফিডেন্স এসেছে। তারা আবার বাজারে ফিরে এসেছে এটা আশার কথা।

২০১৮/১৯ ইলেকশনের বছর। পৃথিবীর সব দেশেই ইলেকশনের আগে বাজার নতুন ইনভেষ্টর ঢুকে যায়। ফরেন বায়াররা আসে, মার্কেট ভাল হবার যথেষ্ট কারন থাকে। আমরা তারই প্রতিফলন দেখছি বাজারে। এই মুহুর্তে বাজার বুলিশ ট্রেন্ডে চলে গেছে বলা যায়। সব ধরনের ইনভেষ্টররা বাজারে ফিরে এসেছে। তারা অনেক কনফিডেন্টের সাথে শেয়ার বেচা-কেনা করছে। বিশ্লেষণে দেখা যায় প্রায় ২০ টার অধিক ব্যাংক গতবারের চেয়ে বেশী আর্ন করেছে। অনেকেই ব্যাংক খাত থেকে প্রচুর মুনাফা করছে। তারপর ব্যাংক খাত ভালো হওয়ার সুযোগ রয়েছে। এই সেক্টরটি দীর্ঘদিন অবহেলায় পরে ছিল। ব্যাংক ছাড়াও ইঞ্জিনিয়ারিং, ফার্মাসিউটিক্যাল সেক্টরগুলো ভাল করছে। এগুলোও বুলিশ ট্রেন্ডের দিকে যাচ্ছে।

আমি মনে করি আমাদের দেশে আরও বেশী ফরেন বিনিয়োগ হতে পারত। যদি বিসেক, ডিএসই, সিএসই সময় উপযোগি পদক্ষেপগুলো নিতো তাহলে ফরেন বায়াররা অনেক ভরসা পেত। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে অনেক বেশী ফরেন বিনিয়োগকারী ইনভেষ্ট করে থাকে। তার যথেষ্ট কারণ রয়েছে। কারণ তাদের বাজার অনেক শক্ত ভিত্তির উপর দাঁড়িয়ে। এজন্য আমাদেরও কিছু পদক্ষেপ নেয়া দরকার। যাতে ফরেন বিনিয়োগ বাড়ে।

এসইসি, ডিএসই এবং সিএসই সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনে বলেন-তারা প্রত্যেকই প্রত্যেকের জায়গা থেকে ভালই করছে। তবে আরও ভাল করার সুযোগ আছে বলে আমি মনে করি। আমাদের ইবিএল এর মাননীয় এমডি মহোদয় ব্যাংকার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি। তিনি আমাদের বাজার কে স্টেবল করতে অনেকগুলো পদক্ষেপ গ্রহন করছেন। ইতোমধ্যে বিনিয়োগকারীদের নানান সমস্যা নিয়ে অর্থ মন্ত্রীর সাথে কয়েকবার তিনি বসেছেনও। আশা করছি সর্ব মহলের চেষ্টায় বাজার ঘুরে দাঁড়াবে।

বিসেক, ডিএসই ও সিএসই ভালো করছে তবে তাদের ওয়েব সাইটগুলো আরও সমৃদ্ধ হবার সুযোগ আছে। শুধু একটু মনোযোগ দরকার।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here