পার্সেন্টেজ ব্যান্ডের নিচে মার্কেট – লো ভলিউম

0
416

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ইনডেক্স ১৮ মার্চ, রবিবার ১.১ পয়েন্ট বা ০.০২% বেড়ে ডোজি ক্যান্ডেল তৈরি করেছে। লোয়ার ট্রেন্ড লাইন থেকে রিট্রেস করে আপার ট্রেন্ড লাইনে গিয়ে ডোজি ক্যান্ডেল তৈরির মাধ্যমে বাধাগ্রস্থ হয়েছে মার্কেট।

টেকনিক্যাল এনালাইসিস অনুযায়ী বর্তমানে ট্রেন্ড লাইন বজায় রেখে চলছে মার্কেট। আজ বাইয়ার এবং সেলারদের মিশ্র কার্যক্রমে ট্রেন্ড লাইন ব্রেক করে উপরে উঠে যেতে পারেনি মার্কেট। আগামী কার্যদিবসে যদি প্রচুর পরিমাণ বাইয়ার চলে আসে তাহলে মার্কেট আপার ট্রেন্ড ব্রেক-আউট করে উপরে উঠে যেতে পারে। আর যদি উল্লেখযোগ্য বাইয়ারের উপস্থিতি লক্ষ্য করা না যায় তাহলে মার্কেট আপার ট্রেন্ড লাইন থেকে রিট্রেস করে নিচের দিকে নেমে যেতে পারে।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বর্তমানে পার্সেন্টেজ ব্যান্ডের নিচে অবস্থান করছে মার্কেট। ট্রেন্ড লাইনের যে পয়েন্টে বাধাগ্রস্থ হয়েছে মার্কেট সে পয়েন্টেই পার্সেন্টেজ ব্যান্ডের লোয়ার ব্যান্ডের অবস্থান। জানুয়ারীর ৪ তারিখের পর থেকে পার্সেন্টেজ ব্যান্ডকে ক্রস করে উপরে উঠে যেতে পারেনি মার্কেট। যেহেতু মার্কেটে ভলিউমের পরিমাণ কম সেহেতু পার্সেন্টেজ ব্যান্ডকে ক্রস করে উপরে উঠে যাওয়ার সম্ভাবনাও কম মার্কেটের।

অপরদিকে এডিএক্স লাইন ট্রেন্ডিং হলেও মাইনাস ডিআই লাইন এখনও প্লাস ডিআই লাইনের উপরে অবস্থান করছে।

বাজারে সর্বমোট ৩৩১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের মধ্যে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ১২২টির, হ্রাস পেয়েছে ১৭২টির আর অপরিবর্তিত ছিল ৩৭টি প্রতিষ্ঠানের। আজকের মোট লেনদেনের মূল্য দাড়িয়েছে ২৭৫ কোটি টাকায় আর মোট লেনদেন হয়েছে ৮০ হাজার ৮০২টি শেয়ার।

পরিশোধিত মূলধনের দিকে থেকে বিবেচনা করলে দেখা যায় আজ ০-১০ কোটি টাকার ১১টি, ১০-৩০ কোটির ১৬টি, ৩০-৫০ কোটির ১৩টি, ৫০-১০০ কোটির ২৭টি, ১০০-২০০ কোটির ২৮টি এবং ২০০ কোটির বেশি ২৮টি শেয়ারের দাম বেড়েছে যা গত কার্যদিবসের তুলনায় যথাক্রমে ৬০.৭১%, ৫২.৯৪%, ৫০%, ৫২.৬৩%, ৫৪.১% এবং ৫৯.৪২% কম। অর্থাৎ গত দিনের তুলনায় সবগুলোর পরিমাণ কমেছে আজ।

পিই রেশিওর ভিত্তিতেও একই অবস্থা দেখা যায়। ০-১০ পিই রেশিওর ১৯টি, ১০-২০ পিই রেশিওর ৪৩টি, ২০-৪০ পিই রেশিওর ৩১টি, ৪০-১০০ পিই রেশিওর ৬টি এবং ১০০ এর পিই রেশিওর বেশি ১৮টি শেয়ারের দাম বেড়েছে যা গত কার্যদিবসের তুলনায় যথাক্রমে ৬৬.০৭%, ৫২.২২%, ৪৬.৫৫%, ৬৮.৪২% এবং ৬০% কম।

ক্যাটাগরির দিকে থেকেও দেখা যায় এ-ইকিউ ক্যাটাগরির ৯০টি, এ-এমএফ ক্যাটাগরির ১১টি এবং বি-ইকিউ ক্যাটাগরির ৬টি শেয়ারের দাম বেড়েছে যা গত দিনের তুলনায় যথাক্রমে ৫৩.৮৫%, ৬৩.৩৩ এবং ৭০% কম।

শুধু জেড-ইকিউ ক্যাটাগরির ১টি শেয়ারের দাম বেড়েছে যা গত দিনের সমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here