নিম্নমুখী প্রবণতায় শেষ পুঁজিবাজারের লেনদেন

0
293

Dse Logoস্টাফ রিপোর্টার : সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার নিম্নমুখী প্রবণতায় শেষ হয়েছে দেশের শেয়ারবাজারের লেনদেন। বেলা দুইটায় দিনের লেনদেন শেষে দুই বাজারেই বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে। তবে সূচকের পতন হয়েছে। একই সঙ্গে লেনদেন কমেছে দুই বাজারে।

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় মূলধনের কোম্পানি গ্রামীণফোনের শেয়ারের আজ বড় দরপতন হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির প্রতিটি শেয়ারের দাম আজ প্রায় ১৫ শতাংশ, অর্থাত্ ৩৪ টাকা ৫০ পয়সা কমেছে। বিষয়টি সূচক কমায় সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছে। বিশেষ করে সাধারণ মূল্যসূচকে প্রভাব ফেলেছে বেশি। এ ছাড়া বাজারে সরকারি শেয়ার ছাড়ার গুজব ছিল। ফলে সরকারি শেয়ারগুলোয় আজ বেশ দাম কমে যায়, যা আজকের নিম্নমুখী প্রবণতার অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন বাজারসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

ডিএসই সূত্রে জানা যায়, দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স গতকালের চেয়ে ৬০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪২২৩ পয়েন্টে। আর সাধারণ মূল্যসূচক কমেছে ১৮৫ পয়েন্ট। এর আগে বেলা ১১টায় সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় ডিএসইতে লেনদেন শুরু হয়। সূচকের নিম্নমুখী এই প্রবণতা লেনদেনের শেষ পর্যন্ত অব্যাহত ছিল।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৮৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৬৩টির দাম বেড়েছে; কমেছে ১০৩টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। ডিএসইতে বৃহস্পতিবার ৮৫০ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়েছে, যা গতকালের চেয়ে ১৩৪ কোটি টাকা কম। বুধবার এই বাজারে ৯৮৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

ডিএসইতে লেনদেনে শীর্ষে ছিল জ্বালানি ও বিদ্যুত্ খাতের সরকারি কোম্পানি মেঘনা পেট্রোলিয়াম। প্রতিষ্ঠানটির ৮১ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এ ছাড়া পদ্মা অয়েল, বিএসসিসিএল, তিতাস গ্যাস, গ্রামীণফোন, যমুনা অয়েল, অ্যাকটিভ ফাইন, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ, ইউনাইটেড এয়ার, স্কয়ার ফার্মা প্রভৃতি লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইর পাশাপাশি চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচক ও লেনদেন কমেছে। দিনের লেনদেন শেষে সিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক গতকালের চেয়ে ২০৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৩ হাজার ১০৪ পয়েন্টে।

সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২০৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯৩টির দাম বেড়েছে। কমেছে ৯০টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।  বাজারে ৬৭ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা গতকালের চেয়ে দুই কোটি টাকা কম। আগের দিন বুধবার সিএসইতে ৬৯ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here