নরওয়ের কাছে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের শেয়ার বিক্রিতে সম্মতি

0
251
ছবি : সংগৃহিত।

স্টাফ রিপোর্টার : নরওয়ের সরকারি তহবিল নরফান্ডের কাছে শেয়ার বিক্রি করার বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের (এমটিবি) শেয়ারহোল্ডাররা। বৃহস্পতিবার ব্যাংকের ১৬তম বিশেষ সাধারণ সভায় (ইজিএম) শেয়ারহোল্ডাররা এই সম্মতি দিয়েছেন।

এর আগে গত সেপ্টেম্বর মাসে শেয়ার বিক্রির বিষয়ে এমটিবি একটি সমঝোতা চুক্তি করে। গত ২০ সেপ্টেম্বর ব্যাংকটির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে মূল্য সংবেদনশীল এই তথ্য জানানো হয়।

চুক্তি অনুসারে নরফান্ড এমটিবির ৬ কোটি ৩৭ লাখ ৭ হাজার শেয়ার কিনবে। ফান্ডটির নামে নতুন শেয়ার ইস্যু করবে ব্যাংকটি। দশ টাকা অভিহিত মূল্যের শেয়ারে ১৭ টাকা ১৯ পয়সা প্রিমিয়াম ধরা হয়েছে। প্রিমিয়ামসহ প্রতি শেয়ারের দাম ২৭ টাকা ১৯ পয়সা। এ হিসেবে উল্লিখিত শেয়ার কেনার জন্য নরফান্ডকে ১৭৩ কোটি ২৩ লাখ ৭৪ হাজার ৮১৮ টাকার সমপরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করতে হবে।

তবে শেয়ারহোল্ডাররা সম্মতি দিলেও বিধি অনুসারে নতুন শেয়ার ইস্যু করার জন্য পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অনুমোদন প্রয়োজন হবে। ব্যাংকটি এখন অনুমতির জন্য বিএসইসির কাছে আবেদন জানাবে।

শেয়ার কেনার পর এমটিবির পরিচালনা পর্ষদে নরফান্ডের পক্ষ থেকে একজন পরিচালক অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

ইজিএমে সভাপতিত্ব করেন এমটিবির গ্রুপ চেয়ারম্যান মো. হেদায়েত উল্লাহ। এতে উপস্থিত ছিলেন এমটিবির ভাইস চেয়ারম্যান খাজা নার্গিস হোসেন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী, আনিস এ. খান, পরিচালক সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী, রাশেদ এ চৌধুরী, মো. আব্দুল মালেক, মো. মনিরুল ইসলাম, স্বতন্ত্র পরিচালক, আনোয়ারুল আমিন এবং কোম্পানী সচিব মালিক মুনতাসির রেজাসহ বিপুল সংখ্যক শেয়ারহোল্ডাররা।

উল্লেখ্য, নরফান্ড হচ্ছে উন্নয়নশীল দেশে বিনিয়োগের জন্য গঠিত নরওয়ের রাষ্ট্রীয় তহবিল। এটি একটি প্রাইভেট ইক্যুইটি কোম্পানি। ১৯৯৭ সালে নরওয়ের জাতীয় সংসদে পাস হওয়া একটি বিলের মাধ্যমে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে ফান্ডটি পরিচালিত। উন্নয়নশীল দেশগুলোর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও প্রযুক্তি হস্তান্তরের মাধ্যমে দারিদ্র‌্য বিমোচন এই ফান্ডের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here