নতুন ৯ ব্যাংকের সরকারি আমানত সংগ্রহের সুযোগ

0
466
Bangladesh Bankস্টাফ রিপোর্টার : রাজনৈতিক বিবেচনায় অনুমোদন পাওয়া নতুন নয়টি ব্যাংক এখন থেকে সরকারি ও আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানের আমানত সংগ্রহ করতে পারবে। তীব্র আমানত সঙ্কটে থাকায় এসব ব্যাংকের উদ্যোক্তাদের জোর তদবিরের পরিপ্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এর আগে কোনো ব্যাংকের বয়স অন্তত পাঁচ বছর না হলে সরকারি আমানত রাখার সুযোগ ছিল না।
আগের নির্দেশনা সংশোধন করে ২৪ সেপ্টেম্বর অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে একটি নির্দেশনা জারি করা হয়। ওই নির্দেশনার আলোকে মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক একটি সার্কুলার জারি করে তফসিলি ব্যাংকের নির্বাহী কর্মকর্তাদের অবহিত করেছে।
বেসরকারি ব্যাংকে বার্ষিক উন্নয়ন প্রকল্প (এডিপি) এবং সরকারি, আধা সরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার অর্থ আমানত প্রসঙ্গে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সার্কুলারে বলা হয়েছে, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য এডিপির আওতায় সরকার থেকে প্রাপ্ত তহবিলের সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ পর্যন্ত বাংলাদেশে ব্যাংকিং ব্যবসায়ে নিয়োজিত বেসরকারি ব্যাংকগুলোয় জমা রাখা যাব। এছাড়া ব্যাংকিং ব্যবসায়ে নিয়োজিত বেসরকারি খাতের ব্যাংকে সরকারি, আধা সরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা তাদের মোট নিজস্ব আমানতের সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ অর্থ জমা রাখতে পারবে।
সূত্র জানিয়েছে, এর আগে একটি সময় স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের সব ধরনের অর্থের পুরোটাই সরকারি ব্যাংকে রাখার বাধ্যবাধকতা ছিল। তবে ২০০৩ সালে এক সার্কুলার জারি করে বেসরকারি ব্যাংকেও অর্থের একটি অংশ রাখার সুযোগ দেওয়া হয়। তবে সে সময় শর্ত দেওয়া হয়, যেসব ব্যাংকের বয়স ৫ বছরের কম সেখানে অর্থ রাখা যাবে না।
এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, রাজনৈতিক বিবেচনায় অনুমতি দেয়া নতুন ব্যাংকগুলো বর্তমানে আমানত সঙ্কটে রয়েছে। এমন অবস্থায় তাদের জোর তদবিরের পরিপ্রেক্ষিতে এ সুযোগ দেয়া হয়েছে। এ ধরনের সুযোগের ফলে বেসরকারি খাতের প্রচলিত ব্যাংকের তুলনায় নতুন ব্যাংকগুলো নানা উপায়ে সরকারি আমানত নেয়ার চেষ্টা করবে। তাতে করে ব্যাংক খাতে এক ধরনের অসম প্রতিযোগিতা দেখা দেবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here