দর কমছে কেন মেঘনা সিমেন্টের

0
1107
স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মেঘনা সিমেন্টের দর ৭ দশমিক ৮৮ শতাংশ কমেছে। ফলে কোম্পানিটি সাপ্তাহিক দরপতনের সপ্তম স্থানে চলে আসে। সপ্তাহজুড়ে এর মোট ৬ কোটি ৫২ লাখ ২৬ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। আগের দুই সপ্তাহে দর প্রায় দ্বিগুণ হয়ে যাওয়ার পর গত সপ্তাহে কোম্পনিটির দর কমেছে।

অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সিমেন্ট কোম্পানিটির কর-পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৫ কোটি ২০ লাখ ৭০ হাজার টাকা ও শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ২ টাকা ৩১ পয়সা, যা এর আগের বছরের একই সময় ছিল যথাক্রমে ৩ কোটি ৯৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা ও ১ টাকা ৭৫ পয়সা।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, টানা দরপতনের শেষ দিকে মেঘনা সিমেন্ট শেয়ারের দর ৬০ টাকার ঘরে নেমে যায়। সেখান থেকে টানা প্রায় দুই সপ্তাহ বেড়ে এর দর ১১৫ টাকা ছাড়িয়ে যায়। মুনাফা তুলে নেয়ার প্রবণতায় গত সপ্তাহে সামান্য দর সংশোধন দেখা গেছে।

ডিএসইতে বৃহস্পতিবার অবশ্য এ শেয়ারের সর্বশেষ দর ১ দশমিক ৩৩ শতাংশ বা ১ টাকা ৪০ পয়সা বেড়ে দাঁড়ায় ১০৭ টাকা। এক মাসে সর্বনিম্ন দর ছিল ৬৮ টাকা ৭০ পয়সা ও সর্বোচ্চ ১১৫ টাকা ৫০ পয়সা। ছয় মাসে এর সর্বনিম্ন দর ছিল ৬৮ টাকা ৭০ পয়সা ও সর্বোচ্চ ১৩১ টাকা ৭০ পয়সা। নীচে এক মাসের চিত্র দেয়া হলো-

MEGHNA 24.05.15৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য কোম্পানিটি ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে এর ইপিএস হয়েছে ৪ টাকা ৪৮ পয়সা ও শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) ৩৬ টাকা ১০ পয়সা। ৩০ মে বাগেরহাটে অবস্থিত কারখানা প্রাঙ্গণে এ কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। রেকর্ড ডেট ছিল ১২ মে।

২০১৩ সালে কোম্পানিটি ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয়। সে সময় ইপিএস হয় ৫ টাকা ২৩ পয়সা, এনএভিপিএস ৩৬ টাকা ৫৪ পয়সা ও কর-পরবর্তী মুনাফা ১১ কোটি ৭৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

মেঘনা সিমেন্টের অনুমোদিত মূলধন ৫০০ কোটি টাকা ও পরিশোধিত মূলধন ২২ কোটি ৫০ লাখ টাকা। রিজার্ভ ৫৯ কোটি ৭১ লাখ টাকা। সর্বশেষ অনুমোদিত বার্ষিক প্রতিবেদন ও বাজারদরের ভিত্তিতে এর মূল্য আয় অনুপাত বা পিই রেশিও ২০ দশমিক ৩৪।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here