তৈরি পোশাক কারখানা নিরাপত্তায় মার্কিন পরিকল্পনা

0
257

Garments things- 2এস বি ডেস্ক : বাংলাদেশের তৈরি পোশাক কারখানাগুলোতে কর্মপরিবেশ সৃষ্টি ও শ্রমিক অধিকার উন্নত করতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কর্ম-কর্মপরিকল্পনা দিয়েছে সরকারকে। মার্কিন সরকারের ইউএস ট্রেড রেপ্রেসেন্টিটিভস্‌ অফিস বা ইউএসটিআর দপ্তর, মার্কিন শ্রম দপ্তর এবং মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে দেয়া  যৌথ এক বিবৃতিতে এক কথা জানানো হয়। পোশাক কারখানাগুলোর বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য এই কর্ম পরিকল্পনায় জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে জানানো হয়, মার্কিন বাজারে বাংলাদেশী পণ্যের বাণিজ্য সুবিধা ফিরে পেতে এসব পদক্ষেপের বাস্তবায়ন জরুরি। যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া কর্ম-পরিকল্পনায় বাংলাদেশ সরকারকে কারখানাগুলোয় আরো অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থার ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ভবন পরিদর্শন কাজ করতে ও পরিদর্শকদের সংখ্যা বাড়াতে বলা হয়।

কারখানা পরিদর্শকদের প্রশিক্ষণের মান এবং পরিদর্শন যাতে নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য হয় তা নিশ্চিত করতে সুনির্দিষ্ট পদ্ধতি প্রতিষ্ঠার আহ্বানও এই বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

পদক্ষেপের মধ্যে জরিমানার অঙ্ক বাড়ানো ও অন্য নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলা হয়েছে। এর যার মধ্যে শ্রম আইন, অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থা বা পরিদর্শন পদ্ধতি মানা না হলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে আমদানি রপ্তানির লাইসেন্স বাতিলেরও সুপারিশ করা হয়।

ইউএসটিআরের বিবৃতিতে আরো জানানো হয়, বাংলাদেশে ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার, সংঘবদ্ধভাবে দর-কষাকষির প্রক্রিয়া নিয়ে যেসব উদ্বেগ রয়েছে তা নিরসনে সরকারকে শ্রম আইন সংস্কার ও তার বাস্তবায়নে উদ্যোগী হতে বলা হয়।

তাজরীন ফ্যাশনসের অগ্নিকাকাণ্ড
তাজরীন ফ্যাশনসের অগ্নিকাকাণ্ড

বাংলাদেশে গত বছরের নভেম্বর মাসে তাজরীন ফ্যাশান্সের ভয়াবহ অগ্নিকান্ড হয়। এরপরে সাভারে রানা প্লাজা ধসে ১১০০ অধিক শ্রমিকের মৃত্যুর হয়। এসব ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্রের সেনেট কমিটি ২৭শে জুন সেদেশের বাজারে বাংলাদেশি পণ্যের শুল্ক মুক্ত প্রবেশের সুবিধা বা জিএসপি স্থগিত করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে।

বাংলাদেশে শ্রমিকদের কাজের নিরাপত্তার অভাবের কারণ দেখিয়ে যুক্তরাষ্ট্র এই সিদ্ধান্ত নেয় এবং জানায় বাংলাদেশে শ্রমিকদের কাজের পরিবেশ উন্নত না হওয়া পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের জিএসপি সুবিধা স্থগিত থাকবে।

মার্কিন সরকারের এই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, জিএসপি সুবিধা বাতিলের সিদ্ধান্ত এবং তা পর্যালোচনার শর্তাবলী নিয়ে তারা ইতিমধ্যেই বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করেছে। সে সময়ই এই কর্ম-পরিকল্পনা বাংলাদেশ সরকারের হাতে তুলে দেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here