তাল্লু স্পিনিংয়ের সম্পত্তি নিলাম স্থগিত

0
545

বিশেষ প্রতিনিধি : বঙ্গজ-তাল্লু গ্রুপের তাল্লু স্পিনিং মিলস লিমিটেডের ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭৯ কোটি টাকা। রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের (বিডিবিএল) পাওনা পরিশোধ করতে পারছে না কোম্পানির কর্তৃপক্ষ।

এদিকে ঋণের কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পারায় এক হাজার ৭৯৭ শতক বন্ধকি জমি ২৪ মে নিলাম আহ্বান করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

সম্পত্তি বাঁচাতে তার আগে ১৫ মে তাল্লু স্পিনিং মিলস কর্তৃপক্ষ উচ্চ আদালত থেকে নিলাম স্থগিতাদেশ নিয়েছে। যে কারণে আরো কিছু দিন সময় পেয়েছেন কোম্পানির পরিচালকরা।

ব্যাংকের দেওয়া তথ্যমতে, বর্তমানে কোম্পানিটির কাছে বিডিবিএলের পাওনা ৬৮ কোটি ৮৪ লাখ ৩৪ হাজার টাকা। এর বিপরীতে নিয়মিত কিস্তি দেওয়ার কথা থাকলেও তা দিতে পারেনি তাল্লু স্পিনিং মিলস কর্তৃপক্ষ। ফলে অনাদায়ী ঋণ ২০১৭ সালে খেলাপিতে পরিণত হয়। এক বছর অপেক্ষার পরে সম্পত্তি নিলামে তোলে ব্যাংক।

নিলামে তোলা সম্পত্তির মধ্যে চুয়াডাঙ্গা ও ময়মনসিংহের কারখানার এক হাজার ৭৯৭ শতক জমি রয়েছে। আগামী ২৪ মে বিকাল ৩টার মধ্যে দরপত্র জমাদানের শেষ তারিখ নির্ধারণ করেছিল বিডিবিএল।

সম্পত্তি নিলামে তোলার পর থেকেই কোম্পানি কর্তৃপক্ষ ব্যাংকের সঙ্গে কোনোভাবে মিটমাট করা যায় কিনা, এজন্য একাধিক বৈঠক ও বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ শুরু করে। কিন্তু আইন অনুযায়ী ব্যাংকের ক্ষমতা সীমিত থাকায় উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হয় তাল্লু স্পিনিং মিল।

তাল্লু স্পিনিংয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আতিকুল ইসলাম বলেন, পণ্য বিক্রি করে উৎপাদন খরচ মেটানো সম্ভব হচ্ছে না। এজন্য ব্যাংকের নির্ধারণ করে দেওয়া কিস্তি নিয়মিত পরিশোধ করতে পারছি না। সম্পত্তির নিলাম বন্ধ করতে তাই আমরা হাইকোর্টে গিয়ে স্থগিতাদেশ নিয়ে এসেছি। কিস্তির টাকার পরিমাণ পুনর্নির্ধারণ করা হলে ঋণের বাকি অর্থ পরিশোধ করতে পারবেনা বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

লোকসানে থাকা তাল্লু স্পিনিং গত দুই বছর ধরে বিনিয়োগকারীদের কোনো লভ্যাংশ দেয়নি। এতে কোম্পানিটি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বর্তমানে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে রয়েছে। সর্বশেষ ২০১৭ সালে কোম্পানিটি ১০ কোটি টাকা লোকসান দিয়েছে।

বস্ত্র খাতের কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ২০০ কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ৮৯ কোটি ৩৩ লাখ টাকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here