বিশেষ প্রতিনিধি : চলতি বছরে কয়েকটি বড় ব্যবসায়িক বাণিজ্যিক ৬টি ব্যাংকের শেয়ার কিনে পরিচালনা পর্ষদে পরিবর্তন এনেছে। নতুন করে আরও ১২ থেকে ১৩ কোম্পানিতেও পরিবর্তন আসছে। এমন গুজব-গুঞ্জনে বাতাস ভারী হচ্ছে। ইতোমধ্যে যার প্রভাবও রয়েছে শেয়ারপ্রতি দরে।

গুঞ্জন রয়েছে- অন্তত ৮টি ব্যাংকের শেয়ারের বড় অংশ হাতবদল হচ্ছে। এমন প্রক্রিয়া গত অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে। কয়েক সপ্তাহ ধরে চলমান থাকা পরিবর্তন প্রক্রিয়ায় রয়েছে ডজন খানেক কোম্পানির মধ্যে রয়েছে বেশিরভাগই ব্যাংক।

ইতোমধ্যে বড় ধরণের পরিবর্তনের তথ্য মিলেছে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারে। যার বড় অংশ যাচ্ছে নামে- বেনামে ইউনাইটেড গ্রুপ ও এস আলমের স্বার্থসংশ্নিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কাছে।

তালিকায় রয়েছে- সাউথইস্ট ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া ও ঢাকা ব্যাংকের নামও। বেসরকারি খাতের প্রথম প্রজন্মের বড় ব্যাংক এবিরও মালিকানা পরিবর্তন হচ্ছে। আরো কিছুদিন পরে দৃশ্যমান হবে -বলে সূত্রগুলো তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ব্যাংক দি সিটির শেয়ারদরও বাড়ছে। কারণ, বিশ্বব্যাংকের সহযোগী প্রতিষ্ঠান আইএফসি ব্যাংকটির মালিকানার ৫ শতাংশ নেওয়ার খবর। বছরের শুরুতে ২০ টাকা থেকে বেড়ে এখন ৪০ টাকা ছাড়িয়ে।

আরো গুঞ্জন রয়েছে- নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংক এফএমও ৫ শতাংশের মালিকানা নেবে। এমন খবরে শেয়ারটির দর ৫০ টাকা ছাড়িয়েছে।

গুঞ্জন : বর্তমানে প্রকৌশল খাতের কোম্পানি বিডি ওয়েল্ডিংয়ের শেয়ারদর ব্যাপক হারে বাড়ছে। চট্টগ্রামভিত্তিক একটি বড় কোম্পানি এর মালিকানায় আসছে, বাজারে এমন গুঞ্জন রয়েছে। এ কারণেই শেয়ারটির দর বাড়ছে।

লিগ্যাসি ফুটওয়্যারের মালিকানায় আসতে কুমিল্লা ইপিজেডের কোম্পানি রয়্যাল ডেনিম আলোচনা করছে।  এমন খবরে শেয়ারটির দর গত জুনের ২০ টাকা থেকে বেড়ে গত অক্টোবরেই ৬০ টাকা ছাড়ায়।

তালিকাভুক্ত এমারেল্ড অয়েলের শেয়ারের মালিকানার পরিবর্তনের খবরে শেয়ারটির দর মাঝে মধ্যেই বাড়ছে। অবশ্য বেসিক ব্যাংক ঋণ কেলেঙ্কারিতে দুদকের মামলায় জড়িয়ে এর এমডি পলাতক হওয়ার পর কোম্পানিটি বন্ধ। বর্তমান পর্ষদ ও ব্যবস্থাপনা এর মালিকানায় পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছেন। তবে ফল এখনও শূন্য।

গত প্রায় দেড় বছর ধরে গুঞ্জন আছে এস আলম গ্রুপ বস্ত্র খাতের কোম্পানি সিএনএ টেক্সটাইলের উদ্যোক্তা-পরিচালকদের শেয়ার কিনে নিচ্ছে। বাণিজ্যিক ব্যাংকের পাশাপাশি কয়েকটি ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানও এ গ্রুপটি কিনতে যাচ্ছে বলে গুঞ্জন আছে।

শোনা যাচ্ছে, ফু-ওয়াং ফুডের মালিকানায়ও পরিবর্তন আসছে শিগগিরই। গত জুনে শেয়ারটির দর ছিল ১৫ টাকা। আগস্টেই তা ২৭ টাকায় ওঠে।

এছাড়া গুঞ্জন আছে বস্ত্র খাতের তুং-হাই নিটিং ও অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ কিনতে যাচ্ছে আলিফ গ্রুপ।

এ ছাড়া বন্ধ কোম্পানি বিচ হ্যাচারি, বস্ত্র খাতের ফ্যামিলিটেক্স, ব্যাংক খাতের আইসিবি ইসলামিকের মালিকানায় বড় পরিবর্তনের গুজব আছে। তবে এর সত্যতা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here