‘জুলাইয়ের শেষে’ আসছে এডিএন টেলিকমের আইপিও

0
4266
রোড শো অনুষ্ঠানে চেয়ারম্যান আসিফ মাহমুদ

শাহীনুর ইসলাম : এডিএন টেলিকম লিমিটেড চলতি জুলাই মাসের শেষে প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পেতে যাচ্ছে। আগামী সপ্তাহে চূড়ান্তভাবে ‘কোম্পানির রিভিউ ফাইল’ উপস্থাপন করা হলে কমিশনের বৈঠকে অনুমোদনের আভাস মিলেছে। কোম্পানির কর্তৃপক্ষ এবং কোম্পানির ইস্যু ম্যানেজার আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের বিশেষ সূত্র সোমবার সকালে এমন তথ্য নিশ্চিত করে।

বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে ৫৭ কোটি টাকার মূলধন উত্তোলন করবে তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগ খাতের কোম্পানি এডিএন টেলিকম লিমিটেড। টাকা উত্তোলনে ইস্যু ব্যবস্থাপক হিসেবে রাষ্ট্রায়ত্ব প্রতিষ্ঠান আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের (আইসিএমএল) সঙ্গে ২০১৬ সালের ৫ জুন চুক্তি স্বাক্ষর করে কোম্পানিটি।

সে ধারাবহিকতায় ২০১৭ সালের ১৯ অক্টোবর রোড শো সম্পন্ন করা হয়। সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে চলতি জুলাই মাসের শেষে কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদনের বিশেষ সম্ভাবনা রয়েছে।

কোম্পানির রিভিউ এবং অনুমোদন প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চা্ইলে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার স্বপ্না রায় বলেন, আইপিও অনুমোদনের আগে একটি কোম্পানির রিভিউ অনেকবার হয়ে থাকে। আগামী সপ্তাহে আমরা সব কাগজপত্র জমা দেব, এরপরে কমিশন চূড়ান্ত রিভিউ করবে। আমরা আশা করছি- জুলাই মাসের শেষে কমিশন সম্মত হয়ে আইপিও অনুমোদন দেবে।

তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে এডিএন টেলিকম লিমিটেডের চেয়াম্যান আসিফ মাহমুদ সোমবার সকালে এ প্রতিবেদককে বলেন, আইসিবি এ বিষয়ে অনেক ভালো বলতে পারবে। কারণ, তাদের সঙ্গে আমরা চু্ক্তিবদ্ধ। তারা যখন যা ডেটা চান আমরা প্রভাইট করি। তবে শুনেছি আইপিও প্রক্রিয়া অনেক দুর এগিয়েছে।

আরো তথ্য জানতে চাইলে এডিএন টেলিকম লিমিটেডের সেক্রেটারি মনির হোসেন বলেন, আগেও রিভিউ হয়েছে এবং আমরা ভালো ফল পেয়েছি। এবারে আমরা আশা করছি- আরো সন্তোসজনক সুফল পাবো, কমিশন সম্মত হয়ে অনুমোদন দেবেন।

চলতি জুলাই মাসের শেষে আইপিও অনুমোদনের বিশেষ সম্ভাবনা রয়েছে বলে তিনিও জানান।

আইপিও থেকে উত্তোলিত ৫৭ কোটি টাকার ব্যবহার সম্পর্কে কোম্পানির পরামর্শক আবু সাঈদ খান (রোড শোতে) বলেছেন, সুনাম ও ব্যবসা প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে অর্থ উত্তোলন করছে এডিএন। আইপিওর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থে কোম্পানির সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়ন (বিএমআরই), নতুন ডাটা সেন্টার তৈরি এবং ঋণ পরিশোধে ব্যয় হবে।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, বিএমআরইতে ৩২ কোটি ৬৭ লাখ, ডাটা সেন্টারে ৫ কোটি ৪৯ লাখ, ঋণ পরিশোধে ১৫ কোটি ৯০ লাখ এবং বাকি অর্থ আইপিও খরচ হিসেবে ব্যয় করবে কোম্পানি।

ওয়্যারলেস, স্যাটেলাইট ও ফাইবার অপটিক— তিন ক্ষেত্রেই এডিএন টেলিকম সেবা প্রদান করে থাকে।

আইপিও প্রসপেক্টাসের তথ্য অনুযায়ী, ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৭ হিসাব বছরে শেয়ারপ্রতি ২ টাকা ৫২ পয়সা আয় হয়েছে কোম্পানিটির। সর্বশেষ হিসাব বছরে কোম্পানির মোট রেভিনিউ ৮২ কোটি ৯৪ লাখ ৫৩ হাজার টাকা। ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ১৩ পয়সা।

৩০ জুন পর্যন্ত এডিএন টেলিকমের মোট সম্পদের পরিমাণ ১২৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা। ৪৪ কোটি ৮৬ লাখ টাকা পরিশোধিত মূলধনের কোম্পানিটির শেয়ারের অভিহিত মূল্য ১০ টাকা। মোট ৪ কোটি ৪৮ লাখ ৬০ হাজার শেয়ারের মধ্যে কোম্পানিটির উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৭৩ দশমিক ২৯ শতাংশ শেয়ার। বাকি শেয়ার রয়েছে অন্যান্য ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে। এডিএন টেলিকমের ঋণমান দীর্ঘ মেয়াদে এ প্লাস এবং স্বল্প মেয়াদে এসটি টু।

তথ্যানুসারে, ২০০৩ সালে তথ্যপ্রযুক্তি সেবার মাধ্যমে ব্যবসা শুরু করলেও ২০১২ সালের এপ্রিলে এডিএন টেলিকম নাম ধারণ করে কোম্পানিটি। সর্বশেষ চার বছরে মোট বিক্রি ও মুনাফায় ধারাবাহিক প্রবৃদ্ধি রয়েছে কোম্পানিটির। ২০১৩ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরে এডিএন টেলিকমের মোট বিক্রি ছিল ৪৩ কোটি ৮ লাখ টাকা, সর্বশেষ হিসাব বছরে যা ৮২ কোটি ৯৪ লাখ টাকায় উন্নীত হয়েছে। ২০১৩ সালে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী মুনাফা ছিল ৫ কোটি ১১ লাখ টাকা, ২০১৭ সালে যা ১০ কোটি ৬০ লাখ টাকায় উন্নীত হয়েছে।

আরো জানা গেছে, মিউচ্যুয়াল ফান্ড ভেনগার্ড এএমএল বিডি ফাইন্যান্স মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ান এডিএন টেলিকমের ২.৯৭ শতাংশ শেয়ার ১৫ টাকা দরে (প্রতিটি শেয়ার ১৫ টাকা দরে) কিনেছে।

ফান্ডটির নিরীক্ষক জানিয়েছে, এডিএন টেলিকমের প্রি-আইপিও শেয়ার কিনেছে ভেনগার্ড বিডি ফাইন্যান্স মিউচ্যুয়াল ফান্ড। তারা ১৫ টাকা করে কোম্পানিটির ১৩ লাখ ৩৩ হাজার ৩৩৪টি শেয়ার ২ কোটি টাকা দিয়ে কিনেছে। শেয়ার দর নির্ধারণ করেছে ভেনগার্ড বিডি ফাইন্যান্স মিউচ্যুয়াল ফান্ড।

উল্লেখ্য, এডিএন টেলিকমের ইস্যু ব্যবস্থাপনা কোম্পানি হিসেবে কাজ করবে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড। রেজিস্টার টু ইস্যু হিসেবে রুডস ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড এবং কোম্পানিটির নিরীক্ষক হিসেবে রয়েছে সাইফুল সামসুল আলম অ্যান্ড কোম্পানি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here