জানুয়ারিতে ডরিন পাওয়ারের আইপিও’র টাকা উত্তোলন

7
10182

DORREN POWER. 2স্টাফ রিপোর্টার : আইপিওভুক্ত ডরিন পাওয়ার জেনারেশনস এন্ড সিস্টেমস লিমিটেড পুঁজিবাজার থেকে টাকা উত্তোলনের অনুমোদন পেয়েছে। আগামী জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটির প্রসপেক্টাস প্রকাশ এবং টাকা উত্তোলন শুরু হবে।

কোম্পানির বিশেষ একটি সূত্র সোমবার টেলিফোনে এতথ্য নিশ্চিত করে।

কোম্পানির বিশেষ সূত্র আরো জানায়, ১০ টাকা অভিহিত মূল্য ও ১৯ টাকা প্রিমিয়াম মিলে প্রতিটি শেয়ারের মূল্য হবে ২৯ টাকা। তবে আইপিওতে প্রতি ২০০ শেয়ারে হবে একটি লট। সে হিসেবে ৫ হাজার ৮০০ টাকায় প্রতিটি লটের মূল্য হিসেবে আবেদন করতে হবে।

সাত ঘোড়া সিমেন্ট কোম্পানির একটি প্রতিষ্ঠান ডরিন পাওয়ার; কোম্পানিটি ২কোটি শেয়ার ছেড়ে পুঁজিবাজার থেকে মোট ৫৮কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। সংগৃহিত টাকা দিয়ে সহযোগী ২টি কোম্পানির পাওয়ার প্লান্ট স্থাপন, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং আইপিওর কাজে ব্যয় করবে ডরিন।

পরিচালক ও কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত অন্য কোম্পানিগুলোর নাম দেখুন-
পরিচালক ও কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত অন্য কোম্পানিগুলোর নাম দেখুন-

ডরিন পাওয়ারের গত ৫ বছরের ওয়েটেড এভারেজ শেয়ার প্রতি আয়ের (ইপিএস) পরিমাণ ৩ টাকা ১৯ পয়সা। ২০১৪ সালের ৩০শে জুন শেষ হওয়া অর্থ বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী  প্রতিষ্ঠানের শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৪ টাকা ৮৭ পয়সা।

ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে অ্যালায়েন্স ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস লিমিটেড এবং আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

7 COMMENTS

  1. There is secret pact between the companies interested to collect funds offering their share into primary market. They have described their EPS higher so that investor becomes interested to invest their money in the primary share. For example, The Regent Textiles had already withdrawn Tk. 15 as premium against a single share whereas invester are getting Tk.0.50 paisa against a single share investing their money. Very good drama and game are going in the Capital Market. There is none to look after this. The market will ruined for ever very soon. Just wait and see.

Sofiq শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন Cancel reply

Please enter your comment!
Please enter your name here