‘জঞ্জালমুক্ত’ হচ্ছে ডিএসই

0
3396

সিনিয়র রিপোর্টার : আরও কোম্পানি তালিকাচ্যুতি নিয়ে গুঞ্জন চলছে পুঁজিবাজারে। আরও প্রায় দুই ডজন কোম্পানি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) থেকে তালিকাচ্যুত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। পুঁজিবাজারকে বিনিয়োগের আকর্ষণীয় স্থান হিসেবে গড়ে তুলতে ‘জঞ্জালমুক্ত’ কার্যক্রম শুরুর কথা জানিয়েছে ডিএসই কর্তৃপক্ষ।

তালিকাভুক্ত অন্তত ১৬ কোম্পানির উৎপাদন ও ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। আংশিক ব্যবসায়িক কার্যক্রম চলছে আরও কয়েকটি কোম্পানির। গত পাঁচ বছরে লভ্যাংশ দেয়নি অন্তত ৭টি কোম্পানি রয়েছে। আবার উৎপাদন বা ব্যবসায়িক কার্যক্রম চালু থাকলেও অন্তত পাঁচ বছর লভ্যাংশ দেয় না এমন কোম্পানিও আছে ৭টি।

তালিকাভুক্তি প্রবিধান (লিস্টিং রেগুলেশনস) অনুযায়ী, কোনো কোম্পানির উৎপাদন বা ব্যবসায়িক কার্যক্রম অন্তত তিন বছর বন্ধ থাকলে কিংবা টানা পাঁচ বছর শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ না দিলে, সেগুলোকে তালিকাচ্যুত করতে পারে স্টক এক্সচেঞ্জ। অবশ্য তালিকাভুক্তির পাঁচ বছর পার না হলে তালিকাচ্যুত করা যায় না।

তিন বছরের অধিক সময় ধরে উৎপাদন বন্ধ এবং অস্বাভাবিকভাবে শেয়ারপ্রতি দর বৃদ্ধি পাচ্ছে অন্তত ১৩ টি কোম্পানির। এসব কোম্পানি সম্পর্কে জানতে চাইলে ডিএসই কর্তৃপক্ষ জানায়, আপাতত দুটি কোম্পানির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ধারবাহিকভাবে অন্য কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উৎপাদন বা ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ থাকা কোম্পানিগুলো হলো- লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, বিচ্‌ হ্যাচারি, বিডি ওয়েল্ডিং, সিএনএ টেক্সটাইল, দুলামিয়া কটন, এমারেল্ড অয়েল, গোল্ডেন সন, জুট স্পিনার্স, কেএন্ডকিউ, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং, মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক্ক, মেঘনা পেট ইন্ডাস্ট্রিজ, নর্দার্ন জুট ম্যানুফ্যাকচারিং, সমতা লেদার, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ, সোনারগাঁও টেক্সটাইল ও ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ।

এ ছাড়া আংশিক ব্যবসায়িক বা উৎপাদন কার্যক্রমে আছে বিডি অটোকার, বিডি সার্ভিসেস, ঢাকা ডাইং, ইমাম বাটন ও মেট্রো স্পিনিংয়ের। তবে সমতা লেদারের ‘আংশিক উৎপাদন চালু রয়েছে’ দাবি করেন কোম্পানি সেক্রেটারি রমজান আলী।

পাঁচ বছর বা তারও বেশি সময় লভ্যাংশ না দেওয়া কোম্পানিগুলো হলো- বেক্সিমকো সিনথেটিক্স, দুলামিয়া কটন, ইমাম বাটন, ইনফরমেশন সার্ভিসেস, জুট স্পিনার্স, কেএন্ডকিউ, মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক্ক, মেঘনা পেট ইন্ডাস্ট্রিজ, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স, সমতা লেদার, সাভার রিফ্যাক্টরিজ, শ্যামপুর সুগার মিলস, সোনারগাঁও টেক্সটাইল, শাইনপুকুর সিরামিক্স ও ঝিলবাংলা সুগার মিলস।

তবে শিগগির আরও কোম্পানি তালিকাচ্যুতির বিষয়ে এখনই মুখ খুলতে রাজি হননি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কর্মকর্তারা। সংশ্নিষ্টরা জানিয়েছেন, বছরের পর বছর যেসব কোম্পানির বাণিজ্যিক কার্যক্রম বন্ধ আছে বা লভ্যাংশ দিচ্ছে না, সেগুলোকে ‘জঞ্জাল’ হিসেবেই দেখছেন তারা।

পেছনের খবর : তালিকাচ্যুত কোম্পানির শেয়ার নিয়ে ‘ডিএসইর কোন করণীয় নেই’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here