সেন্ট্রাল ফার্মার মালিকানার ‘পরিবর্তন শিগগিরই’

1
1342

স্টাফ রিপোর্টার : সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানির ৫ উদ্যোক্তা-পরিচালকের ৩০ শতাংশ শেয়ার ক্রয় করছেন ব্যবসায়ী মো. আজিজুল ইসলামের মালিকানাধীন আলিফ গ্রুপ। চলতি সপ্তাহের যে কোন দিন মালিকানা পরিবর্তন করা হব। এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন সেন্ট্রাল ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুনসুর আহমেদ।

মুনসুর আহমেদ জানান, বাজারমূল্যে ব্লক মার্কেটের মাধ্যমে পুরো শেয়ার বিক্রি করা হবে। যেদিন কেনাবেচা হবে, এর আগের সাত দিনের ক্লোজিং প্রাইসের গড় দরকে শেয়ারের হস্তান্তর মূল্য ধরা হবে।

ডিএসইতে প্রকাশিত দুটি কোম্পানির চুক্তির প্রতিবেদন প্রকাশ

বর্তমানে সেন্ট্রাল ফার্মার পরিশোধিত মূলধন ১০৩ কোটি ৭২ লাখ টাকা। অর্থাৎ মোট শেয়ার ১০ কোটি ৩৭ লাখ ২০ হাজার। এর মধ্যে বর্তমান পাঁচ উদ্যোক্তা-পরিচালক মোরশেদা আহমেদ (চেয়ারম্যান), মুনসুর আহমেদ (ব্যবস্থাপনা পরিচালক), মো. রোকনুজ্জামান, নাসিমা আক্তার ও পারভেজ আহমেদ ভূঁইয়ার হাতে রয়েছে কোম্পানির সমুদয় শেয়ারের ৩০ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ শেয়ার। অর্থাৎ মূলধনে তাদের অংশ প্রায় ৩১ কোটি ১৪ লাখ টাকা।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটে চলতি বছেরের ২২ ফেব্রুয়ারি চুক্তির তথ্য প্রকাশ করেছে। এর দুদিন আগে ২০ ফেব্রুয়ারি আলিফ গ্রুপের সঙ্গে কোম্পানিটির উদ্যোক্তা-পরিচালকদের সমুদয় শেয়ার কেনাবেচার উদ্দেশ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি (এমওইউ) সই হয়।

এ হিসাবে প্রায় ৯৮ কোটি টাকা মূল্যে এদের শেয়ার কিনবে আলিফ গ্রুপ। লেনদেন সম্পন্ন হওয়ার পর পর্ষদের পাশাপাশি পুরো ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন আনবে আলিফ গ্রুপ। জানা গেছে, কোম্পানিটির দায়িত্ব নেওয়ার পর নতুন করে বিনিয়োগের পরিকল্পনা আছে।

বিশেষত, যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ওষুধ রফতানির জন্য সে দেশের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) সনদ নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে কোম্পানিটির। এ জন্য কোম্পানির উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনায় বড় ধরনের সংস্কার হতে পারে।

সেন্ট্রাল ফার্মার পর্ষদে নতুন চেয়ারম্যান, পরিচালক ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হবে।

1 COMMENT

  1. Small investors come to purchase share hoping reasonable return as it need not any show room, much capital. They were, in fact, getting return which was helpful for their livelihood. But in recent days, they have been experiencing adverse thing. The market price has been fallen for about 14 days at a stress. As a result, they are very frustrated as their size of capital has been squeezed at a greater range. Now the see no light of hope to survive themselves with the business of trading in share market.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here