গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের ‘ডিজিটাল ইন্স্যুরেন্স’ চালু

0
166

স্টাফ রিপোর্টার : গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড ‘ডিজিটাল ইন্স্যুরেন্স’ চালু করেছে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন বীমা উন্নয়ন এবং নিয়্ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) -এর চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাটোয়ারী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশনের (বিআইএ) প্রেসিডেন্ট শেখ কবির হোসেন। অনুষ্ঠানে গ্রীন ডেলটা ইন্স্যুরেন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও ফারজানা চৌধুরী, উপদেষ্টা নাসির এ চৌধুরী ছাড়াও শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স সিইও ফারজানা চৌধুরী বলেন, সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে বীমা খাতে আমাদের কোম্পানির নতুন প্রডাক্ট ‘ডিজিটাল ইন্স্যুরেন্স’ চালু করেছে। এতে গ্রাহকদের সুবিধা হবে। বীমা পলিসির দিক দিয়ে আমরা দেশে সর্বপ্রথম অনলাইনের আওতায় ‘ডিজিটাল ইন্স্যুরেন্স’ এর যাত্রা শুরু করেছি। শুধু পলিসি নয়, ভবিষ্যতে ক্লেইম সেটেলমেন্টেও ডিজিটাল পদ্ধতি আনার চেষ্টা করবো। এতে গ্রাহকদের জন্য বেশ সুবিধা হবে।

অনুষ্ঠানে গ্রীন ডেলটা ইন্স্যুরেন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও ফারজানা চৌধুরী, উপদেষ্টা নাসির এ চৌধুরী

আইডিআরএ চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, গ্রীন ডেল্টার নতুন প্রডাক্ট ‘ডিজিটাল ইন্স্যুরেন্স’ চালুর মাধ্যমে বীমা খাতে তারা এক ধাপ এগিয়ে গেলো। এর মাধ্যমে বুঝা যাচ্ছে বীমা খাত পিছিয়ে নেই।

তিনি বলেন, বীমা খাতের বেশ বদনাম ছিল। এতে বীমার প্রতি মানুষের অনাস্থা সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা চেষ্টা করছি আস্থার সংকট দূর করার জন্য। বীমার প্রতি মানুষের আস্থার সংকট দূর করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে আইডিআরএ। ফলাফলও পাওয়া যাচ্ছে। সবাই মিলে কাজ করে গ্রাহকদের আস্থা ধরে রাখার মাধ্যমে বীমা খাতের উন্নয়ন তরান্বিত করার আহ্বান জানান তিনি।

বিআইএ প্রেসিডেন্ট শেখ কবির বলেন, ডিজিটাল কার্যক্রম শুধু গ্রীন ডেল্টাতে নয়, পুরো বীমা খাতে শুরু হওয়া উচিত। এতে মানুষের ভোগান্তি কমবে।

তিনি বলেন, বীমা কোম্পানি গ্রাহকদের ক্লেইম দেয় না বলে এক সময় বেশ অভিযোগ ছিল। আইডিআরএ  এটি নিয়ে কাজ করছে। ফলে অভিযোগ অনেকাংশে কমে আসছে।

তিনি আরও বলেন, নন লাইফের চেয়ে লাইফ ইন্স্যুরেন্স গুলোতে ডিজিটাল কার্যক্রম শুরু করতে হবে। তাতে গ্রামের মানুষ বেশ উপকার পাবে। সাধারণ ও মধ্যবিত্ত জনগনের জন্য লাইফ ইন্স্যুরেন্স। তারা যদি কোনো ক্লেইম না পায় তাহলে খুব কষ্ট হয়। তাই সেদিকে নজর দিতে হবে। লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিগুলো ডিজিটাল হলে তাদের উপকার হবে।

গ্রীন ডেল্টার কোম্পানি অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং কোম্পানি সচিব সৈয়দ মঈনুদ্দিন আহমেদ ডিজিটাল ইন্স্যুরেন্স এর বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে আলোচনা করেন।

তিনি বলেন, একজন গ্রাহক কয়েকটি তথ্য দিয়েই পলিসি নিতে পারবেন। বিশ্বের যেকেনো স্থান থেকে যেকোনো প্রেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে এ পণ্যের সেবা নিতে পারবেন। তবে আইপে ব্যবহার করে কোনো গ্রাহক সেবা নিলে ১৫ শতাংশ অর্থ ফেরত পাবেন।

বর্তমানে গ্রাহকেরা মোটর ইন্স্যুরেন্স সেবা, ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স সেবা, নিবেদিতা এবং পারসোনাল এক্সিডেন্ট পলিসি ডিজিটাল মাধ্যমে গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীর ওয়েবসাইট থেকে গ্রহণ করতে পারবেন। অন্যান্য সেবাসমূহও দ্রুত ডিজিটাল মাধ্যমের আওতাভুক্ত করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here