ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনে বৈঠক

0
984

স্টাফ রিপোর্টার : দুই স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত সব সিকিউরিটিজের (শেয়ার, মিউচুয়াল ফান্ড, বন্ড, ডিবেঞ্চার প্রভৃতি) লেনদেন নিষ্পত্তির (সেটলমেন্ট) জন্য স্বতন্ত্র ক্লিয়ারিং ও সেটলমেন্ট ব্যবস্থা প্রবর্তনের লক্ষ্যে গত ১৩ জুন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট) বিধিমালা ২০১৭ বাংলাদেশ গেজেটে প্রকাশিত হয়।

২০১২ সালে উদ্যোগ নেয়ার পাঁচ বছর পরে একটি স্বতন্ত্র ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট পদ্ধতি প্রবর্তনের জন্য আইনি কাঠামো চূড়ান্ত হয়েছে। এখন এ বিধিমালার আওতায় একটি ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠন করতে হবে।

আর এ লক্ষ্যে চলতি সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস অর্থাৎ বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই), চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) এবং সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল)। এদিন বিকালে ডিএসইতে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

জানতে চাইলে ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেএএম মাজেদুর রহমান বলেন, নতুন বিধিমালার আওতায় একটি স্বতন্ত্র ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনে করণীয় নির্ধারণ ও মতবিনিময় করতেই এ বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। তবে মাত্রই আইনটি প্রণীত হয়েছে এবং এ বিষয়ে আমাদের আরো অনেক কাজ করার আছে। তাই একটি স্বতন্ত্র ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনে আরো সময় লাগবে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট) বিধিমালা ২০১৭ অনুযায়ী, সেন্ট্রাল কাউন্টার পার্টি ডিমিউচুয়ালাইজড আকারে গঠন করা হবে, অর্থাৎ এর মালিকানা থেকে ব্যবস্থাপনা আলাদা থাকবে। এ কোম্পানির ন্যূনতম পরিশোধিত মূলধন হবে ৩০০ কোটি টাকা, নিট সম্পদ কখনই পরিশোধিত মূলধনের ৭৫ শতাংশের নিচে নামতে পারবে না। তবে কমিশন সময়ে সময়ে নির্ধারিত ঝুঁকিভিত্তিক মূলধন পর্যাপ্ততা সংরক্ষণের নির্দেশ দিতে পারবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here