রেকিট বেনকিজারের লভ্যাংশ ঘোষণা, মুনাফা বেড়েছে ইনটেকের

0
544

স্টাফ রিপোর্টার : ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০১৭ হিসাব বছরের জন্য ৫১৫ শতাংশ চূড়ান্ত লভ্যাংশ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে রেকিট বেনকিজার (বাংলাদেশ) লিমিটেড। একই সঙ্গে বহুজাতিক কোম্পানিটির প্রথম প্রান্তিকে আয় অনেকটা কমেছে।

অন্যদিকে ইনটেক লিমিটেডের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় গত বছরের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ বেড়েছে।

রেকিট বেনকিজার : ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০১৭ হিসাব বছরের জন্য ৫১৫ শতাংশ চূড়ান্ত লভ্যাংশ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।সর্বশেষ নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে পরিচালনা পর্ষদের সুপারিশের ভিত্তিতে এ ঘোষণা দেয় কোম্পানিটি। এর আগে ২৭৫ শতাংশ অন্তর্বর্তী নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল বহুজাতিকটি।

নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, সর্বশেষ হিসাব বছরে রেকিট বেনকিজারের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮০ টাকা ৬৩ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৬২ টাকা ৬৬ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর এর শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়ায় ৬৪ টাকা ২৮ পয়সায়।

নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন, লভ্যাংশ ও অন্যান্য এজেন্ডা অনুমোদনের জন্য ২৫ জুন সকাল সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রামে অবস্থিত দ্য পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেডে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আয়োজন করবে প্রতিষ্ঠানটি। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৪ মে। এর আগে ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ৪০০ শতাংশ অন্তর্বর্তী লভ্যাংশ দেয়ার পর ৩৭৫ শতাংশ চূড়ান্ত নগদ লভ্যাংশ দেয় কোম্পানিটি। সব মিলিয়ে সে হিসাব বছরের জন্য মোট ৭৭৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ পেয়েছেন কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা।

এদিকে চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) ৭ টাকা ৩৪ পয়সা ইপিএস দেখিয়েছে রেকিট বেনকিজার। আগের বছর একই সময়ে তা ছিল ১১ টাকা ৫৪ পয়সা। ৩১ মার্চ এর এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৬৮ টাকা ৮৯ পয়সায়।

বহুজাতিক এফএমসিজি কোম্পানিটি ১৯৮৭ সালে শেয়ারবাজারে আসে। ২৫ কোটি টাকা অনুমোদিত ও ৪ কোটি ৭২ লাখ ৫০ হাজার টাকা পরিশোধিত মূলধনের কোম্পানিটির বর্তমান রিজার্ভ ১৮ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট শেয়ার সংখ্যা ৪৭ লাখ ২৫ হাজার। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালক ৮২ দশমিক ৯৬ শতাংশ, সরকার ৩ দশমিক ৭৭, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ৬ দশমিক শূন্য ৪, বিদেশী ২ দশমিক ৭ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে রয়েছে বাকি ৪ দশমিক ৫৩ শতাংশ শেয়ার।

সর্বশেষ এজিএমে অনুমোদিত নিরীক্ষিত মুনাফা ও বাজারদরের ভিত্তিতে রেকিট বেনকিজার শেয়ারের মূল্য আয় (পিই) অনুপাত ২৮ দশমিক ৭৬, হালনাগাদ অনিরীক্ষিত মুনাফার ভিত্তিতে যা ২৯ দশমিক ২১।

একই সঙ্গে জানুয়ারি-মার্চ’১৮ পর্যন্ত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭ টাকা ৩৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১১ টাকা ৫৪ পয়সা।

৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৬৮ টাকা ৮৯ পয়সা।

ইনটেক লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় গত বছরের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে (ইপিএস) হয়েছে ২১ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১৩ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই১৭ -মার্চ১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২২ পয়সা। গত হিসাব বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১৪ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১০ টাকা ৪০ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here