কত দূর যাবে ডিএসইএক্স ইনডেক্স ?

1
6143

মেহেদী আরাফাত : টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস অনুযায়ী সোমবার ঢাকা শেয়ার বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়- ডিএসইএক্স ইনডেক্স লেনদেনের শুরু থেকেই বৃদ্ধি পেতে থাকে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে ডিএসই এক্স ইনডেক্স এবং লেনদেন উভয়ই বাড়তে থাকে এবং দিন শেষে ডিএসইএক্স ইনডেক্স বুলিশ ক্যান্ডেলস্টিক তৈরি  করে। ডিএসই এক্স ইনডেক্স ৬৭.৩৩ পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়ে ৪৫৭৮.৮৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে, যা আগের দিনের তুলনায় ১.৪৯% বৃদ্ধি পেয়েছে।

বাজার পর্যবেক্ষনে দেখা যায়ে ডিএসইএক্স ইনডেক্স বাড়ার পিছনে যে খবর টি কাজ করে সেটি হচ্ছে পুঁজিবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ সংক্রান্ত নীতিমালা সংশোধন। এর ফলে প্রায় ৭ হাজার কোটি টাকা বাড়তি বিনিয়োগ আসার পথ খুলে গেল। এটা বাজারের জন্য অনেক ভাল একটি খবর। TA বিশ্লেষকদের মতে বাজার ধাপে ধাপে বাড়বে। ডিএসইএক্স ইনডেক্স এর অতীত অবস্থা পর্যবেক্ষন করলে দেখা যায়ে, ডিএসইএক্স ইনডেক্স এর RSI যখন ৭০ স্পর্শ করে তখন বাজার কিছুদিনের জন্য ধীর হয়। বর্তমানে ডিএসইএক্স ইনডেক্স ৪৭৬৬ পয়েন্ট হলে RSI ৭০ স্পর্শ করবে। এই হিসাবে বিশ্লেষকরা ধারনা করছে সব কিছু ঠিক থাকলে বাজার এই টানে কমপক্ষে ১৮৮ পয়েন্ট বাড়বে। বর্তমানে ডিএসই এক্স ইনডেক্স এর পরবর্তী সাপোর্ট ৪৫০০ পয়েন্টে এবং রেজিটেন্স ৪৭৬৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আজ বাজারে এম.এফ.আই এর মান ছিল ৫০.৪২ এবং আল্টিমেট অক্সিলেটরের মান ছিল ৪১.৬৬। এম.এফ.আই কিছুটা উদ্ধমুখি অবস্থান করছে এবং আল্টিমেট অক্সিলেটর কিছুটা উদ্ধমুখি অবস্থান করছে।

ডিএসইতে ৯ কোটি ৬৮ লাখ ৫৮ হাজার ২৫৩ টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়, যার মূল্য ছিল ৪৮৮.৮৭ কোটি টাকা। ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৪০ কোটি টাকা। ঢাকা শেয়ারবাজারে ৩২০ টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে, যার মধ্যে দাম বেড়েছে ২৪৭ টির, কমেছে ৫১ টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২২ টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।Screenshot_2

পরিশোধিত মূলধনের দিক থেকে দেখা যায়, বাজারে চাহিদা বেশী ছিল ৩০০ কোটি টাকার উপরে পরিশোধিত মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের যা আগেরদিনের তুলনায় ২৩.২৫% বেড়েছে। অন্যদিকে বেড়েছে ১০০-৩০০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের যা আগেরদিনের তুলনায় ১৪.২২% বেশী। অন্যদিকে ০-২০ এবং ২০-৫০ কোটি টাকার পরিশোধিত মুলধনী প্রতিষ্ঠানের লেনদেনের পরিমান গতকালের তুলনায় ২৪.৫৬% এবং ১০.৭৫% কমেছে।

পিই রেশিও ৪০ এর উপরে থাকা শেয়ারের লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ১১.১% কমেছে। অন্যদিকে পিই রেশিও ০-২০ এর মধ্যে থাকা শেয়ারের লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ১৬.৯৫% বেড়েছে।

ক্যাটাগরির দিক থেকে এগিয়ে ছিল ‘এন’ ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেন যা আগেরদিনের তুলনায় ৯.০৭% বেশী ছিল। কমেছে ‘জেড’  ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেন যা আগেরদিনের তুলনায় ১৬.৫৪% কম ছিল।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here