একুমুলেশন / ডিস্ট্রিবিউশন লাইন

0
594

একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন ইন্ডিকেটর তৈরি করেছিলেন  মার্ক চেইকিন, এটি একটি ভলিউম পরিমাপক ইন্ডিকেটর যার মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট শেয়ারের কি পরিমান মানি ফ্লো হচ্ছে তা পরিমাপ করা যায়। চেইকিন আসলে এই ইন্ডিকেটর এর নাম দিয়েছিলেন কিউমিলিটিভ মানি ফ্লো লাইন। কিউমুলিটিভ ইনডিকেটরগুলোর মত  একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন হল মানি ফ্লো ভলিউম এর প্রতিটি সময়সীমার চলমান সমষ্টি ।

প্রথমে, হাই-লো এর রেঞ্জ এর সম্পর্কের উপর ভিত্তি করে একটা গুণক বের করা হয় । দ্বিতীয়ত, মানি ফ্লোর গুণক কে ঐ সময়ের ভলিউম দিয়ে গুণ করলে মানি ফ্লো ভলিউম বের হয় । মানি ফ্লো ভলিউম এর চলমান  সমষ্টি দিয়ে একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন পাওয়া যায়। Chartist-রা শেয়ার এর ট্রেন্ড বুঝার জন্য বা ডাইভারজেন্স এর মাধ্যমে আসন্ন রিভারসেল বুঝার জন্য ব্যবহার করে । একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন নির্দিষ্ট সময়ের ভলিউম এর কিউমুলিটিভ পরিমাপ । গুণক যদি বেশী ভলিউম এর সাথে পজিটিভ হয় তাহলে এটা শক্তিশালী বাই প্রেসার বুঝায় । একইভাবে গুণক এর মান যদি কম ভলিউম এর সাথে নেগেটিভ হয় তাহলে এটা শক্তিশালী সেল প্রেসার বুঝায় । এভাবে মানি ফ্লো ভলিউম একটা রেখার মত হয় যেটা বর্তমান ট্রেন্ড এর দিকেও হতে পারে যেটা শক্তিশালী ট্রেন্ড এর উপস্থিতি প্রকাশ করে, আবার এটা ট্রেন্ড এর বিপরীত দিকেও হতে পারে, যেটা ট্রেন্ড এর সম্ভাব্য বিপরীতমুখীতা প্রকাশ করে । ঊর্ধ্বমুখী ট্রেন্ড এ যদি ঊর্ধ্বমুখী  একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন দেখা যায় তাহলে সেটা শক্তিশালী বাই প্রেসার প্রকাশ করে । আবার ঊর্ধ্বমুখী ট্রেন্ড এ যদি নিম্নমুখী  একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন দেখা যায় তাহলে সেটা শক্তিশালী সেল প্রেসার প্রকাশ করে এবং এটাও প্রকাশ করে যে বর্তমান ট্রেন্ড বিপরীতমুখী হতে পারে।

Screenshot_1

যখন একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন পজিটিভ ডাইভারজেন্স সৃস্টি করে তখনই বুলিশ সিগন্যাল পাওযা যায়। একটি দূর্বল পজিটিভ ডাইভেরজেন্স এর ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে যে ট্রেন্ডটি যখন উপরে উঠতে থকে তখন সর্বোচ্চ কোন পর্যায়ে যাবে তা দেখাতে ব্যর্থ । একুমুলেশন/ডিস্ট্রিবিউশন লাইন -এর সাধারন ট্রেন্ড খুঁজে বের করাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য । দু’সপ্তাহের পজিটিভ ডাইভারজেন্স কিছুটা আশঙ্কাজনক। তবে এক মাসের পজিটিভ ডাইভারজেন্স অনেকটা কার্যকরী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here