স্টাফ রিপোর্টার : কেনিয়ার নাইরোবিতে প্রথম দেশের বাইরে বিনিয়োগ করতে যাচ্ছে স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। ইতোমধ্যে বিনিয়োগের সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে। ২০১৯ সালে উৎপাদন কার্যক্রম শুরু হবে।

সোমবার রাজধানীর রমনায় অবস্থিত স্যামসন এইচ. চৌধুরী সেন্টার ঢাকা ক্লাবে স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের  ৫১তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) কথাগুলো বলেছেন কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন চৌধুরী ।

কোম্পানির প্রত্যেক শেয়ারহোল্ডারকে স্কয়ার পরিবারের অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে গণ্য করে ভবিষ্যতেও  তারা কোম্পানির পাশে থাকবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এজিএমে ৩৫% নগদ এবং ৭.৫% স্টকসহ মোট ৪২.৫% লভ্যাংশ ও সদ্য সমাপ্ত ৩০ জুন ২০১৭ অর্থ বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক বিবরনী, পরিচালকবৃন্দের প্রতিবেদন এবং এজেন্ডাসমূহ অনুমোদিত হয়।

এদিকে আগামী বছর থেকে নগদ লভ্যাংশের পরিমাণ বৃদ্ধি করার জন্য বিনিয়োগকারীরা পরিচালকদের নিকট আহবান জানান। তবে সর্বোপরি কোম্পানির আর্থিক অবস্থা, ব্যবস্থাপনা পর্ষদ ও আসন্ন কার্যক্রমের প্রতি বিনিয়োগকারীরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

এছাড়াও এজিএমে কোম্পানির সভাপতি স্যামুয়েল এস চৌধুরী, সহ সভাপতি রত্না পাটরা, পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী, কাজি ইকবাল হারুন এবং সিকান্দার আলীসহ  কোম্পনির শেয়ারহোল্ডারগণ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে কোম্পানির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৫ টাকা ৫১ পয়সা যা আগের হিসাব বছরে ছিল ১৩ টাকা ৪১ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ৭১ টাকা ৪৭ পয়সা যা আগের বছরে ছিল ৫৯ টাকা ১২ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here