উৎপাদনে ফিরছে সিভিও পেট্রোক্যামিকেলস, ‘রপ্তানী প্রক্রিয়া শুরু’

0
4596

রাহেল আহমেদ শানু : শিগগিরই বাণিজ্যিভাবে উৎপাদন শুরু করবে সিভিও পেট্রোক্যামিকেলস রিফাইনারি লিমিটেড। ইতোমধ্যে চারটি প্লান্টের উৎপাদন শুরু হয়েছে এবং উৎপাদিত পণ্য বিদেশে রপ্তানীর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে আসছে বিদেশি বিনিয়োগ।

উৎপাদনে ফেরা, বিদেশি বিনিয়োগ এবং রপ্তানী প্রক্রিয়া সম্পর্কে এসব কথা বলেন পেট্রোক্যামিকেলস লিমিটেডের চেয়ারম্যান শামসুল আলম শামীম। সম্প্রতি তিনি বিদেশ থেকে দেশে ফিরে স্টক বাংলাদেশকে এমন তথ্য নিশ্চিত করেন।

সিলেট গ্যাস ফিল্ডের নতুন করে গ্যাস প্রদান সম্পর্কে তিনি বৃহস্পতিবার দুপুরে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গত এক মাস ধরে বিষয়টি ঝুলে আছে। বিষয়টি হবে-হবে করে হচ্ছে না। আদালতও আমাদের পক্ষে রায় দিয়েছে। আসলে ‘ইললিগ্যালি’ তারা ব্যান্ড (গ্যাস প্রদান বন্ধ) করেছিল। সব প্রক্রিয়া আমরা শেষ করেছি, দ্রুতই অনুমোদন পাব।

সিলেট গ্যাস ফিল্ডের গ্যাস প্রদান সম্পর্কে চেয়ারম্যান বলেন, এটা এখন সিলেট গ্যাস ফিল্ডের ব্যাপার নয়; জ্বালানী মন্ত্রণালয়ের ব্যাপার। এটা নিয়ে এখন নীতিমালা প্রণনয়ন চলছে। তবে আমাদের চেষ্টার কোন ত্রুটি নেই। দ্রুত আমরা কানেকশন পাবো, বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদনেও ফিরে আসবো। ইতোমধ্যে লোকাল কাঁচামাল দিয়ে বিকল্প হিসেবে আমরা কিছু প্রকল্প চালু করেছি।

বিষয়টি নিয়ে আমাদের কোম্পানির এমডি, ডিএমডি, চিফ এডভাইজার সবাই এখন ঢাকায়। খুব তাড়িতাড়ি আমরা উৎপাদনে ফেরার ঘোষণা দিতে পারবো -ইনশাল্লাহ।

‘বিদেশি বিনিয়োগও আসছে’ উল্লেখ করে রপ্তানী প্রক্রিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, আমাদের ইমপোর্টের ফ্যাসিলিটি আছে, আমরা এখন সেদিকেই যাচ্ছি। তাই লোকাল কাঁচামাল দিয়ে উৎপাদন চালানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

রপ্তানী করতে আমাদের বাধা নেই। তাই এখন চেষ্টা করছি লোকালটা দিয়ে।

পূর্ণ উৎপাদনে না ফিরতেই রপ্তানীর বিষয়ে জানতে চাইলে শামসুল আলম শামীম বলেন, এখানকার গ্যাস ফিল্ড থেকে লোকাল কাঁচামাল কেনা হয়। সেসব দিয়েই আমরা আপাতত চালিয়ে নিচ্ছি। এসব দিয়েই ইতোমধ্যে একটা প্রকল্প (কারখানা) চালু করা হয়েছে। আরো চারটি খুব দ্রুত উৎপাদনে ফিরে আসবে।

আর যেসব বন্ধ বয়েছে, তার মধ্যে একটির জন্য লোকাল কাঁচামাল ব্যবহার করা হবে। কিছু কাঁচামাল কাতার, বাহারাইন, ওমান থেকে আমদানী করা হয়। রপ্তানীর জন্য চারটি কারখানা আমাদের তৈরি, আমরা এখন আরো বেশি লোকাল কাঁচামালের জন্য অপেক্ষা করছি। আশা করি, এটাও দ্রুত হয়ে যাবে।

সিভিও পেট্রোক্যামিকেলস রিফাইনারি লিমিটেড মূলত গ্যাস উপজাত থেকে ছয়-সাত ধরণের পণ্য উৎপাদন করে। এরমধ্যে রয়েছে- পেট্রল (মোটর স্পিরিট), ডিজেল, কেরোসিন, থিনার ও মিনারেল কার্পেন্টাইল (এমটিটি)। এছাড়াও কোম্পানিটি আরো কয়েক ধরণের পেট্রো রাসায়নিক পণ্য উৎপাদন করে থাকে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ২১ জুলাই অনিয়মের অভিযোগে সিভিও পেট্রোক্যামিকেলস লিমিটেডকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ  করে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্টান সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেড। পরিশোধন না করে কনডেনসেট (গ্যাসের উপজাত) জ্বালানি তেল সরবরাহ করায় এর আগে সিভিওর বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে কনডেনসেট বিক্রি বন্ধ করে দেয় পেট্রোবাংলা। দ্বিতীয় বার গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে সিলেট গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

৬ মাসের বেশি সময় উৎপাদন বন্ধ থাকায় চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন ‘এ’ থেকে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে শুরু হয়েছে।

পেছনের খবর : সিভিও উৎপাদন করছে পেট্রল-ডিজেল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here