ইমরান হোসেন : শরমিতা হাসপাতাল লিমিটেড উন্নয়নমূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। হাসপাতালটির ১২ তলা ভবনের সামনের অংশ আরো দৃষ্টিনন্দন করা হচ্ছে। সেবা ব্যবস্থার আরো মান বৃদ্ধি ও দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে কর্তৃপক্ষ।

১২ তলা ভবনের সামনের অংশের সংস্কার কাজ চলছে।

হাসপাতাল দৃষ্টিনন্দন সম্পর্কে কথা হয় কোম্পানির প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তার (সিএফও) সঙ্গে। সিএফও বলেন, ভবনের সামনে আউটলুক আরও দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষনীয় করা হচ্ছে। একই সঙ্গে ভবিষ্যতের খরচ কমানোর জন্য প্লেট বসান হচ্ছে। প্রতি দু’এক বছর পর-পর রং করা ব্যয় ও সময় সাপেক্ষ। এ জন্যই নতুন এ কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে।

তবে কি পরিমাণ ব্যয় হবে তা তিনি উল্রেখ করেননি।

ভবনের প্লেট বসানোর কাজে জড়িত শ্রমিকরা জানায়, ১২ তলা ভবনের সামনে আউটলুকে প্লেট বসানের কাজে ব্যাপক হারে ব্যয় হয়। তবে এটি প্লেটের কোয়ালিটির ওপর নির্ভর করে।

ব্যয় পরিমাণ বাড়লে কোম্পানির আয়ের ওপর কেমন প্রভাব পড়তে পারে বলে অনেকে শঙ্কা প্রকাশ করেন।

তারা বলেন, এটা কোম্পানিগুলোর বছরের একটা সাধারন প্রক্রিয়া। ভবন থাকলে তার দেখভাল বা মেরামত করতেই হবে। তবে কম টাকার ব্যয় যদি বেশী টাকায় দেখানো হয়, সেটার প্রভাব কোম্পানির প্রান্তিক প্রতিবেদনে পড়তে পারে। আর সেটি হলে কোম্পানির শেয়ার দরও প্রভাব পড়তে পারে ।

ডিএসই সূত্রে প্রকাশ, ১৯৯৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত কোম্পানিটির অনুমদিত মূলধন  ২০০ কোটি টাকা আর পেইডআপ কেপিটাল ১৬৩ কোটি ৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকা, রিজার্ভে আছে ৬৬৭ কোটি ৬ লাখ টাকা।

কোম্পানির মোট শেয়ারের ৩৬ দশমিক ১৫ শতাংশ এর উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে, ২১ দশমিক ২৭ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী,  দশমিক শূন্য  ১  শতাংশ বিদেশী বিনিয়োগকারী এবং বাকি ৪২ দশমিক ৫৭ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

এদিকে বাংলাদেশের শেয়ার বাজার তালিকাভূক্ত একমাত্র হাসপাতালটিতে চালু রয়েছে নানা ধরনের সেবামূলক ‌ কার্যক্রম । যেমন উন্নাত চিকিৎসা, এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস, বহির্বিশ্বের চিকিৎসা পেতে এয়ার এ্যাম্বুলেন্সে রোগী পরিবহনে সমরিতা হাসপাতালের সাথে The SOS International এর সাথে চুক্তি আছে। রোগী চাইলে এয়ার এ্যাম্বুলেন্স সুবিধা পেতে (২৪ ঘন্টা) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।  

উল্লেখ্য, গত বছরে কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। শেয়ার প্রতি  ইপিএস ছিল ১.০৫ টাকা এবং শেয়ার প্রতি প্রতি নিট এ্যাসেট ভ্যালু ৫১.০১ টাকা ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here