উত্তরা ব্যাংকের ভুল তথ্য প্রকাশ ডিএসইর

1
486

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) নানা বিষয়ে একের পর এক ভুল করেই চলেছে। বিশেষ করে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্যে ভুল করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

কিছুদিন আগেই এসিআই লিমিটেড ও ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (ইউপিজিডিসিএল) মূল সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশে ভুল করেছিল ডিএসই। এবার উত্তরা ব্যাংক লিমিটেডের উদ্যোক্তা-পরিচালকদের শেয়ার ধারণ সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশে ভুল করেছে তারা। ‌টানা ১০ মাস এই ভুল তথ্য পরিবেশ করে গেছে তারা।

উল্লেখ, ডিএসইর ওয়েবসাইটের তথ্য অনুসারে, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ শেষে উত্তরা ব্যাংকের উদ্যোক্তা-পরিচালকদের শেয়ার ধারণের পরিমাণ ছিল ১২.৮৮ শতাংশ। আর সে সময় প্রতিষ্ঠানের কাছে ১৯.৫৮ শতাংশ, বিদেশী বিনিয়োগকারী ২.৩৭ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ৫৭.১৮ শতাংশ ছিল। ডিএসইর তথ্য অনুসারে এদের ধারণকৃত শেয়ারগুলো যোগ করলে তা মোট শেয়ারের ৯২.০১ শতাংশ হয়। এখানে ৮ শতাংশ শেয়ারের একটা ঘাটতি থেকে যায়।

বুধবার উত্তরা ব্যাংকের শেয়ার ধারণ সংক্রান্ত বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়ার পর ডিএসই কর্তৃপক্ষের নজর পড়ে ভুলটির প্রতি। শেষ বেলায় ভুল তথ্যটি তারা সংশোধন করে নেয়।

৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত উত্তরা ব্যাংকের আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, আলোচিত সময়ে ব্যাংকটির উদ্যোক্তা-পরিচালকদের শেয়ার ধারণের পরিমাণ ছিল ২০.৮৮ শতাংশ। সিকিউরিটিজ আইন অনুসারে তালিকাভুক্ত সব কোম্পানিকে প্রতি মাসেই শেয়ার ধারণ সংক্রান্ত তথ্য দুই স্টক এক্সচেঞ্জ ও নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে পাঠাতে হয়।

২০১৮ সালের ডিসেম্বর শেষে ব্যাংকটি স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে শেয়ার ধারণসংক্রান্ত যে প্রতিবেদন পাঠিয়েছিল, সেখানেও উদ্যোক্তা-পরিচালকদের ধারণকৃত শেয়ার সংখ্যা ২০.৮৮ শতাংশ উল্লেখ করা হয়েছে।

শুধু উত্তরা ব্যাংকের তথ্যে ভুল নয়, শেয়ার ধারণ সংক্রান্ত তথ্যে ভুলের বিষয়টি নিয়মিত ঘটনায় পরিণত হয়েছে ডিএসইতে। এতে বিনিয়োগকারীরা বিভ্রান্ত ও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here