স্টাফ রিপোর্টারঃ মঙ্গলবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ এর – ডিএসইএক্স ইনডেক্স দিনের প্রথম ভাগে ক্রয়চাপের ফলে বেশ কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী প্রবনতা দেখা যায় এবং দিনভর কিছুটা মিশ্র প্রবনতাই লক্ষ্য করা যায় এবং দিনশেষে পুনরায় বিক্রয়চাপ বৃদ্ধির ফলে নিন্মমুখি প্রবনতাই লেনদেন শেষ হয়ে সূচক ৪.৫৫ পয়েন্ট বাড়ে। ডি.এস.ই এক্স ইনডেক্সে আজ ইনভার্টেড হ্যামার ক্যান্ডেলস্টিক লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ইনভার্টেড হ্যামার ক্যান্ডেলস্টিক দ্বারা সাধারণত বাজারের গতি পরিবর্তনের সম্ভাবনা প্রকাশ পেয়ে থাকে। আশা করা যাচ্ছে ক্রয়চাপ বৃদ্ধি পেলে বাজার তার স্বাভাবিক গতি নিয়ে আবার আপ ট্রেন্ড শুরু করতে পারে।

Screenshot_3

বর্তমানে ডিএসই এক্স ইনডেক্স এর পরবর্তী সাপোর্ট ৪৬৬৫ পয়েন্টে এবং রেজিটেন্স ৪৭১৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে।  আজ বাজারে আরএসএই ( RSI) এর মান ছিল ৭৮.০২ ।

Screenshot_2

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৬৮১ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের তুলনায় ১৮৯ কোটি ৫০ লাখ টাকা বেশি লেনদেন। আগের দিন ডিএসইতে ৪৯২ কোটি ৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

আজ ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩২২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৩টির, কমেছেও ১১৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৩টির শেয়ার দর। এদিকে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৬৯৫ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক দশমিক ২৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ১২৫ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক দশমিক ৬৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৭৭৮ পয়েন্টে।
chart (1)
অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ সিএসইতে ৩২ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৪২৯ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩২টির, কমেছে ৭৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮টির।