আসছে ফরেনারদের জন্য আইপিও কোটা

0
2290
বিশেষ প্রতিনিধি : প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) বিদেশী বিনিয়োগকারীরাও আবেদন করতে পারবেন। বিদেশী বিনিয়োগকারীদের (ফরেনার) জন্য ১০ শতাংশ নির্দিষ্ট পরিমাণ শেয়ার কোটা রাখা হচ্ছে। স্থানীয় ও প্রবাসী বাংলাদেশীদের পাশাপাশি তারাও আইপিওতে আবেদন করবেন।
‘পাবলিক ইস্যু বিধিমালা ২০০৬’ সংশোধনের মাধ্যমে আইপিওর কোটা পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হচ্ছে। গত বছরের ডিসেম্বরে পাবলিক ইস্যু বিধিমালা সংশোধনের খসড়া চূড়ান্ত করা হয়। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) বিশেষ সূত্র রোববার এ তথ্য জানায়।
বর্তমানে আইপিওতে কোটা সংরক্ষণ করা হয়েছে- ২০ শতাংশ ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারী, ১০ শতাংশ প্রবাসী বাংলাদেশী, ১০ শতাংশ মিউচুয়াল ফান্ড ও অবশিষ্ট ৬০ শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য রাখা হয়েছে। তবে এ কোটা ব্যবস্থার মধ্যে কিছুটা পরিবর্তন করা হবে।
আইপিওতে কোটা বরাদ্দের ১০ শতাংশ বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য রাখার বিধান রাখা হচ্ছে। এজন্য সাধারণ বিনিয়োগকারীদের বরাদ্দ করা শেয়ার ৬০ শতাংশ থেকে ১০ শতাংশ কমিয়ে ৫০ এর ঘরে রাখা হবে।

পাবলিক ইস্যু বিধিমালার আলোকেই আইপিও অনুমোদন করা হয়। ২০১২ সালের ২০ নভেম্বর বিধিমালাকে যুগোপযোগী করতে সংস্থার নির্বাহী পরিচালক এম হাছান মাহমুদ ও পরিচালক মোহাম্মদ রেজাউল করিমের সমন্বয়ে দুই সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি গত ১৯ ডিসেম্বরের মধ্যে তাদের সুপারিশ জমা দেয়।

সুপারিশ পর্যালোচনা করে পাবলিক ইস্যু বিধিমালা সংশোধনের খসড়া প্রায় সম্পন্ন করা হয়েছে। আগামীতে কমিশনের যেকোন সভায় খসড়াটি চূড়ান্ত করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here