আলিফ গ্রুপ কি সেন্ট্রাল ফার্মায় বিনিয়োগ করবে?

0
2851

সিনিয়র রিপোর্টার : ওষুধ খাতের কোম্পানি সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যালসে বড় ধরনের বিনিয়োগের পরিকল্পনা করছে আলিফ গ্রুপ, এমন গুঞ্জনে শেয়ারটির দর মাত্র দুই মাসে সোয়া দুইগুণেরও বেশি বেড়েছে।

সোমবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ারদর গত এক বছরের সর্বোচ্চ দর ২৮ টাকা ৩০ পয়সায় কেনাবেচা হয়েছে। গত দুই মাসে শেয়ারটির দর সোয়া দুইগুণ বেড়েছে। গত ২০ নভেম্বর ডিএসইতে সেন্ট্রাল ফার্মার শেয়ার গত এক বছরের সর্বনিম্ন দর ১২ টাকা ৮০ পয়সায় কেনাবেচা হয়েছিল। মঙ্গলবার শেয়ারটির দর সর্বোচ্চ ২৮ টাকা ৩০ পয়সায় ওঠে।

‘আলিফ গ্রুপকে অংশীদার হিসেবে নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা চলছে’ বলে সেন্ট্রাল ফার্মার শীর্ষ এক কর্মকর্তা স্টক বাংলাদেশ -এর কাছে স্বীকার করেছেন।

তিনি জানান, গত ২০-২৫ দিন আগে আলিফ গ্রুপই ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য নতুন মূলধন জোগান দেওয়ার প্রস্তাব নিয়ে এসেছে। গ্রুপটির প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) মোহাম্মদ হানিফ এবং কোম্পানি সচিব জিএম রাসেলের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। তবে এখনও এ বিষয়ে কিছু চূড়ান্ত হয়নি।

সেন্ট্রাল ফার্মার ওই কর্মকর্তা বলেন, প্রস্তাব পাওয়ার পর গ্রুপটিকে কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে ওদের সঙ্গে (আলিফ গ্রুপ) নিয়ে আরও বড় আকারে কিছু করা যায় কি-না, তা নিয়ে চিন্তাভাবনা চলছে। পুরো প্রক্রিয়া শেষ করতে আরও অন্তত ২-৩ মাস সময় লাগবে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, ওষুধ ব্যবসায় ভালো অবস্থান করতে এফডিএ সনদ (যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন প্রদত্ত পণ্যের মান সনদ) পাওয়ার প্রত্যাশা রয়েছে তাদের। এ জন্য বড় বিনিয়োগ দরকার। আলিফ গ্রুপ নিজে থেকে বিনিয়োগ করতে চেয়েছে এটা আশার কথা। সেন্ট্রাল ফার্মা বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবেই দেখছে। এর আগে আলিফ গ্রুপ পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের মালিকানাধীন সিএমসি কামাল টেক্সটাইলের বড় অংশ শেয়ার কিনে নেয়।

এদিকে শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টদের কাছে জানতে চাইলে তারাও জানান, বাজারে গুঞ্জন রয়েছে সেন্ট্রাল ফার্মা কোম্পানিটি কিনে নিচ্ছে ব্যবসায়ী মো. আজিজুল ইসলামের মালিকানাধীন আলিফ গ্রুপ। শিগগিরই এর ব্যবস্থাপনায় বড় ধরনের রদবদল হবে।

একাধিক মার্চেন্ট ব্যাংক এবং ব্রোকারেজ হাউসের শীর্ষ কর্মকর্তা এমন তথ্যই দিয়েছেন।

তবে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাজেদুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে সেন্ট্রাল ফার্মার কাছ থেকে এখনও কোনো তথ্য তারা পাননি।

শেয়ারদর বৃদ্ধির পাশাপাশি শেয়ার কেনাবেচার পরিমাণও বহুগুণ বেড়েছে। শেয়ারবাজারে কোম্পানির মালিকানায় বড় পরিবর্তন-সংক্রান্ত গুঞ্জন ছড়ানোর আগে গত নভেম্বরে গড়ে প্রতিদিন ৬-৭ লাখ শেয়ার কেনাবেচা হতো। এক মাসের ব্যবধানে তা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here