আর্থিক ৬টি প্রতিষ্ঠানের আয়-ব্যয়ের তথ্য

0
732

সিনিয়র রিপোর্টার : ছয়টি অব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান চলতি হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিক (এপ্রিল-জুন’ ২০১৮) প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদন অনুসারে কোম্পানিগুলোর মুনাফা এবং লোকসানের চিত্র ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) প্রকাশ করেছে।

মুনাফা অথবা লোকসানের পাশাপাশি আর্থিক প্রতিষ্ঠান ছয়টি চলতি বছরের জুন পর্যন্ত শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) এবং পরিচালন নগদ প্রবাহ বা ক্যাশ ফ্লোর তথ্যও প্রকাশ করা হয়।

প্রতিষ্ঠান ছয়টি হচ্ছে- লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, আইডিএলসি, ইউনিয়ন ক্যাপিটাল, প্রাইম ফাইন্যান্স, বিডি ফাইন্যান্স এবং জিএসপি ফাইন্যান্স। এর মধ্যে প্রাইম ফাইন্যান্স ও ইউনিয়ন ক্যাপিটাল লোকসান করেছে। বাকি চারটি কোম্পানি মুনাফা করলেও লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, আইডিএলসি এবং জিএসপি ফাইন্যান্সের মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে।

ইউনিয়ন ক্যাপিটাল : চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি লোকসান করেছে ১৩ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে লোকসান হয় ১ টাকা ৭১ পয়সা। তবে চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জানুয়ারি-জুন) প্রতিষ্ঠানটি শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ৫ পয়সা, আগের বছরের একই সময়ে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি ১ টাকা ২৭ পয়সা লোকসান করে।

এদিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) চলতি বছরের ৩০ জুন শেষে দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৯৭ পয়সা, যা ২০১৭ সাল ৩১ ডিসেম্বর শেষে ছিল ১৩ টাকা ৯২ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি পরিচালন নগদ প্রবাহ চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে দাঁড়িয়েছে ঋণাত্মক ৫ টাকা ৫৯ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ঋণাত্মক ৩ টাকা ৭২ পয়সা।

প্রাইম ফাইন্যান্স : চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি লোকসান করেছে ১ টাকা ২৩ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে লোকসান হয় ৮৯ পয়সা। চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জানুয়ারি-জুন) প্রতিষ্ঠানটি শেয়ারপ্রতি লোকসান করেছে ১ টাকা ৭৪ পয়সা, আগের বছরের একই সময়ে এই লোকসান ছিল ১ টাকা ৪৫ পয়সা।

এদিকে চলতি বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৬ টাকা ৭৯ পয়সা, যা ২০১৭ সাল ৩০ জুন শেষে ছিল ৮ টাকা ৭৬ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি পরিচালন নগদ প্রবাহ চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে দাঁড়িয়েছে ঋণাত্মক ১ টাকা ৮৭ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি পরিচালন নগদ প্রবাহ ছিল ৭৫ পয়সা।

বিডি ফাইন্যান্স : চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ২ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে প্রতিষ্ঠানটি শেয়ারপ্রতি ৭ পয়সা লোকসান করে। আর চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জানুয়ারি-জুন) প্রতিষ্ঠানটি শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ৩ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৫০ পয়সা।

এদিকে চলতি বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ৯৫ পয়সা, যা ২০১৭ সাল ৩১ ডিসেম্বর শেষে ছিল ১৬ টাকা ৪১ পয়সা। শেয়ার প্রতি পরিচালন নগদ প্রবাহ চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে দাঁড়িয়েছে ঋণাত্মক ১ টাকা ৯৬ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্র তি পরিচালন নগদ প্রবাহ ছিল ৫ টাকা ২৭ পয়সা।

আইডিএলসি : চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস)(ইপিএস) করেছে ১ টাকা ৪৯ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৫৫ পয়সা। চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জানুয়ারি-জুন) শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ২ টাকা ৯৫ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৩ টাকা ২০ পয়সা।

এদিকে চলতি বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৩৩ টাকা ৩৬ পয়সা, যা ২০১৭ সাল ৩১ ডিসেম্বর শেষে ছিল ৩৩ টাকা ৪১ পয়সা। শেয়ার প্রতি পরিচালন নগদ প্রবাহ চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে দাঁড়িয়েছে ৯ টাকা ৬৬ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৩ টাকা ৭৫ পয়সা।

লংকাবাংলা : চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ৩৫ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৭৩ পয়সা। চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জানুয়ারি-জুন) শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ৫১ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৩৮ পয়সা।

এদিকে চলতি বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৮০ পয়সা, যা ২০১৭ সাল ৩০ জুন শেষে ছিল ১৮ টাকা ৩ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি পরিচালন নগদ প্রবাহ চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ২৬ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ১৫ পয়সা।

জিএসপি ফাইন্যান্স : চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ৪৬ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৫৬ পয়সা। চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জানুয়ারি-জুন) শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) করেছে ৮৯ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৭ পয়সা।

এদিকে চলতি বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৩৩ পয়সা, যা ২০১৭ সাল ৩১ ডিসেম্বর শেষে ছিল ২০ টাকা ৪৪ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি পরিচালন নগদ প্রবাহ চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে দাঁড়িয়েছে ৪৫ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ঋণাত্মক ৩ টাকা ১ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here