আরো ১৫ কারখানার সঙ্গে ব্যবসা বাতিল করলো অ্যালায়েন্স

0
1692

স্টাফ রিপোর্টার : নতুন করে আরো ১৫টি গার্মেন্টস কারখানার সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক বাতিল করেছে আমেরিকাভিত্তিক  ক্রেতাদের কারখানা পরিদর্শন জোট অ্যালায়েন্স। সময়মত সংস্কার কাজ সম্পন্ন না করা ও অসহযোগিতার অভিযোগে এসব কারখানার সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করা হয়েছে। সব মিলিয়ে এ তালিকায় কারখানার সংখ্যা দাঁড়ালো ১১৭ এ।

অর্থাৎ এসব কারখানা অ্যালায়েন্সভুক্ত ব্র্যান্ডের সঙ্গে ব্যবসা করতে পারবে না। অন্যদিকে অ্যালায়েন্সভুক্ত ৫০টি কারখানা সংস্কার কাজ সম্পন্ন করতে পেরেছে। অ্যালায়েন্সের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

Garmentsদেশের গার্মেন্টস কারখানার বৈদ্যুতিক, অগ্নি ও ভবনের কাঠামোগত সংস্কার তদারকির লক্ষ্যে ২০১৩ সালে গঠিত হয় অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স সেফটি। এটি অ্যালায়েন্স নামে পরিচিতি। প্রায় ৬শ’ কারখানার সংস্কার কাজ তদারক করছে এ জোট। এর বাইরে অ্যাকর্ড নামে ইউরোপের ক্রেতাদের সমন্বয়ে আলাদা একটি জোটও প্রায় দেড় হাজার কারখানার সংস্কার কাজ তদারক করছে। আগামী ২০১৮ সালে তাদের কার্যক্রমের মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে। এর মধ্যে অ্যালায়েন্সভুক্ত সব কারখানাকে সংস্কার কাজ সম্পন্ন করতে হবে।

সংস্কার সম্পন্ন করতে ব্যর্থ কারখানা অ্যালায়েন্সভুক্ত ক্রেতাদের সঙ্গে ব্যবসা করতে পারবে না। এরই অংশ হিসেবে সংস্কারে পিছিয়ে থাকা কারখানার সঙ্গে ব্যবসা বাতিল করা হচ্ছে। অবশ্য এসব কারখানার ফের অ্যালায়েন্সের মানদণ্ড অনুযায়ী সংস্কার সম্পন্ন করতে পারলে তারা অ্যালায়েন্সের সঙ্গে ব্যবসায়ে ফিরতে পারবে।

সংস্কার সম্পন্ন করার তালিকায় সর্বশেষ যুক্ত হলো চারটি কারখানা। কারখানাগুলো হলো অ্যারো জিন্স লিমিটেড, এলসিবি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ লিমিটেড, স্মার্ট জিন্স এবং দ্যাট্স ইট সোয়েটার। এর মধ্যে স্মার্ট জিন্স সংস্কারে পিছিয়ে থাকায় ব্যবসা বাতিল করা হলেও পরবর্তীতে তারা সংস্কার কাজ সম্পন্ন করার সনদ পেল।

বাংলাদেশে অ্যালায়েন্সের পরিচালক ও সাবেক রাষ্ট্রদূত জিম মরিয়ার্টি সংস্কার সম্পন্ন করায় কারখানাগুলোর প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেন, কারখানাগুলো প্রমাণ করেছে, নিরাপদ কর্মস্থল তৈরি করা তাদের নাগালের মধ্যে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here