আরএন স্পিনিংয়ের ‘রায়ের কপি চার মাসেও’ পৌঁছেনি

0
10129

আদালত প্রতিবেদক : আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেডের রাইট শেয়ার নিয়ে জালিয়াতি মামলার রায় চলতি বছরের মে মাসে নিষ্পত্তি হয়েছে। চার মাস আগে মামলা নিষ্পত্তি হলেও এখনো আদালতের নির্দেশনার কপি কোম্পানির কর্তৃপক্ষের হাতে পৌঁছেনি। এমন কথা জানিয়েছেন কোম্পানির সেক্রেটারি হান্নান মোল্লা।

তিনি স্টক বাংলাদেশকে বলেন, আদালত শর্ত সাপেক্ষে মামলার নিষ্পত্তি করেছে। তবে আদালতের কি শর্ত রয়েছে তা আমরা এখনো জানিনা। আমরা আদালতের কোন নির্দেশনা বা রায়ের কপি চার মাসেও হাতে পাইনি। আমাদের আইনজীবী ব্যারিস্টার সাহেব পেয়েছেন কি-না তাও জানিনা।

নির্দেশনা না পাওয়ায় আর এন স্পিনিং মিলস লিমিটেডের নির্ধারিত বোর্ডসভা ১৫ মে এবং ৯ জুন দুধাপে স্থগিত করা হয়।

স্থগিত এজিএম এবং বোর্ডসভা সম্পর্কে হান্নান মোল্লা সোমবার দুপুরে আরো বলেন, আমরা কোম্পানির বোর্ডসভা করতে পারবো। তবে এজিএম করতে পারবো না। আদালতের নির্দেশনার কপি হাতে না পাওয়া পর্যন্ত এ বিষয়ে কিছুই করা যাবে না।

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে ৯ মে প্রধান বিচারপতির নের্তৃত্বে গঠিত আপিল বিভাগের এক নাম্বার বেঞ্চে পর্যবেক্ষণ সাপেক্ষে মামলার নিষ্পত্তি করা হয়েছে। তবে রায়ে কী ধরনের পর্যবেক্ষণের কথা বলা হয়েছে, তা স্পষ্টভাবে জানার সুযোগ নেই।

তবে রায়ের ফলে রাইট শেয়ার জালিয়াতি মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে। হাতে না পাওয়ার কারণ হিসেবে জানতে আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেডের আইনজীবী ব্যারিস্টার মাসুমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তার সহকারী ইসমাইল হোসেন বলেন, ঈদ উদযাপন শেষে আইনজীবী এখনো দেশে ফেরেননি। (আগামীকাল) মঙ্গলবার তিনি দেশে ফিরবেন বলে জানিয়েছেন।

মামরার রায়ে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে (বিএসইসি) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কোম্পানিটির উদ্যোক্তাদের সাবসক্রাইব করা শেয়ারের অর্থের উৎস খতিয়ে দেখতে। অর্থাৎ উদ্যোক্তারা নিজেদের টাকায় রাইটের শেয়ার কিনেছেন, না-কি কোম্পানির তহবিল থেকে ওই অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে হবে বিএসইসি। আর তার আলোকে আইনী ক্ষমতা অনুসারে উদ্যোক্তাদের বিরুদ্ধে যে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

পেছনের খবর : আরএন স্পিনিংয়ের মামলার নিষ্পত্তি, সম্ভাবনা বাড়ল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here