আন্তর্জাতিক পাওয়ার এক্সপো ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর

0
901

প্রতি বছরের মতো এবারও ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক সোলার, পাওয়ার, রিয়েল স্টেট এবং কন-এক্সপো প্রদর্শনী। এ উপলক্ষে আগামী ৩-৫ ডিসেম্বর, আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায়- বিদ্যু উৎপাদন, বিতরণ ও পরিবহন; নির্মাণ সরঞ্জামাদি এবং আবাসন শিল্পের একটি বৃহৎ আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। ১৯৯২ সাল থেকে সেমস্ গ্লোবাল’ সফলতার সাথে এই বহুজাতিক এক্সিবিশনের আয়োজন করে আসছে।

উল্লেখ্য, সেমস্ গ্লোবাল বর্তমানে আটটি দেশে কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি বছরে ৫০টিরও বেশি আন্তর্জাতিক মানের প্রদর্শনীর আয়োজন করছে।

১৫তম পাওয়ার বাংলাদেশ, ১০তম সোলার বাংলাদেশ, ১৮তম কন-এক্সপো এবং ১৬তম রিয়েল স্টেট বাংলাদেশ প্রদর্শনীগুলোতে দেশীয় উদ্যোগতাদের পাশাপাশি প্রায় ১১টি দেশের উদ্যোগতারা তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করছেন।

এছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রচুর পরিমানে ভোক্তা/দর্শক প্রদর্শনীতে উপস্থিত থাকবেন। প্রদর্শনীগুলোতে পাওয়ার জেনারেশন এবং ট্রান্সমিশন, বিকল্প শক্তি, সোলার পাওয়ার, এনার্জি এবং রিনিউবল এনার্জি খাতের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির পাশাপশি নির্মাণ সামগ্রী, নির্মাণ কৌশল, যন্ত্রাংশ এবং গৃহায়ন ও আবাসন শিল্পের প্রদর্শন হবে।

সেমস্ গ্লোবালের এই আয়োজনের মাধ্যমে উৎপাদন, আউটসোর্স, উপ-ঠিকাদারি, নকশা ও উন্নয়নের পাশাপাশি সরাসরি বিপণনের জন্য ব্যবসায়িক অংশীদার এবং পারস্পরিক সমঝোতার জায়গা খুঁজে বের করার চেষ্টা থাকবে। ভোক্তা, উদ্যোক্তা, আমদানিকারক ও সর্বারহকারীদের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন রচিত হবে, যেখানে ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরনের জন্য বিকল্প জ্বালানী গুরুত্বর সাথে বিবেচিত হবে। প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিদেশী উদ্যোক্তাগণ বাংলাদেশে বিনিয়গের পরিবেশও পর্যবেক্ষণ করবেন। বাংলাদেশ হতে পারে দক্ষিণ এশিয়ায় ব্যবসায়ীদের জন্য একটি মজবুত প্লাটফর্ম। ১১টি দেশের প্রদর্শকদের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ বাংলাদেশের সমৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে সক্ষম।

প্রতিদিন সকাল ১০.৩০মিঃ থেকে সন্ধ্যা ৭.৩০ মিঃ পর্যন্ত প্রদর্শনীগুলো সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। ভেন্যূতে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে দর্শনার্থীরা প্রদর্শনীগুলো উপভোগ করতে পারবেন।

এক্সিবিশনের পাশাপাশি প্রদর্শকদের অনুরোধে ‘সেমস বাংলাদেশ’ এবং ‘এনার্জি বাংলা ডট কম’ সম্মিলিতভাবে আয়োজন করেছে “পাওয়ার ও এনার্জি ফোরাম বাংলাদেশ ২০১৫”। ৫ই ডিসেম্বর সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিতব্য এ ফোরামে আলোচনার বিষয়ব¯‘ নির্ধারণ করা হয়েছে,“প্রাথমিক জ্বালানী ও বিদ্যুৎঃ রোডম্যাপ চায় উদ্যোক্তা।

১৫তম পাওয়ার বাংলাদেশ ২০১৫ ও ১০তম সোলার বাংলাদেশ ২০১৫ আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী দুটি সরকারের বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনপ্রাপ্ত। প্রদর্শনীটির সিলভার স্পন্সর ডানা গ্রুপ এবং ১৮তম কন-এক্সপো বাংলাদেশ প্রদর্শনীটির সিলভার স্পন্সর পরসিলেনসা নুপামী বিডি লিঃ এবং ১৬তম রিয়েল স্টেট বাংলাদেশ প্রদর্শনীটির গোল্ড স্পন্সর “রুপায়ন গ্রুপ।

আন্তর্জাতিক এক্সিবিশনগুলোর মিডিয়া পার্টনার দৈনিক সমকাল, ডেইলী নিউ এইজ, ব্রডকাস্ট পার্টনার ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন এবং রেডিও পার্টনার রেডিও স্বাধীন ৯২.৪ এফএম। বিজ্ঞপ্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here