আজিজ পাইপসের লভ্যাংশ অনুমোদন, বাড়ছে ব্যবসা

0
571

স্টাফ রিপোর্টার : আজিজ পাইপস লিমিটেডের ৩৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা রোববার রাজধানীর আইডিইবি ভবনে মাল্টিপারপাস হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় অনেক বিনিযোগকারীর উপস্থিতিতে কোম্পানির ২০১৬-১৭ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন উপস্থাপন এবং ৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডাররা অনুমোদন করেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন কোম্পানির চেয়ারম্যান মো. কামাল হোসেন গাজী।

এ সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির স্বতন্ত্র পরিচালক খন্দকার নূরুজ্জামান, মো. সুলতান জাহাঙ্গীর, পরিচালক এটিএম আহমেদুর রহমান, মো. আমিনুল কাদের খান, উদ্যোক্তা পরিচালক মোহা. আবদুল হালিম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. নূরুল আবছার এবং কোম্পানি সচিব এএইচএম জাকারিয়া।

সভায় চেয়ারম্যান কামাল হোসেন গাজী বলেন, চলতি বছরে নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও আজিজ পাইপস ২৭ লাখ ৫৮ হাজার টাকা নিট মুনাফা করেছে। এরমধ্য থেকে ৫ শতাংশ লভ্যাংশ (বোনাস শেয়ার) দেওয়া হবে।

ডাচ-বাংলা ও উত্তরা ব্যাংকের মামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এগুলো নিষ্পতি করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে এবং শিগগিরই এ সমস্যার সমাধান হবে। পাশাপাশি পুন:তফসিলকৃত ঋণের কিস্তি পরিশোধ করার চেষ্টা থাকবে। একইসঙ্গে কোম্পানির চলতি মূলধনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কোম্পানির উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষে চেয়ারম্যান বলেন, এ বছরেই পুরানো যন্ত্রপাতি বিএমআরই করা হবে। আবার কোম্পানির নিজস্ব উদ্যোগে পণ্যের কাঁচামাল আমদানি করা হবে। পাশাপাশি আজিজ পাইপসের বিক্রয় বাড়ার লক্ষে মাকেটিং টিমকে আরো শক্তসহ নতুন দক্ষ কর্মী নিয়োগ দেয়া হবে।

সভায় সম্মতিক্রমে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে জন্য ঘোষিত ৫ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশসহ ৪টি  বিষয় (এজেন্ডা) অনুমোদিত হয়। এগুলো হলো- ২০১৬-১৭ অর্থবছরের আর্থিক বিবরণী অনুমোদন, পরিচালক ও স্বতন্ত্র পরিচালক পুন:নিয়োগসহ নিরীক্ষক নিয়োগ। এছাড়া নিরীক্ষকের পারিশ্রমিক ১ লাখ ১০ হাজার টাকা অনুমোদন হয়।

আজিজ পাইপস শেয়ারবাজারে ১৯৮৬ সালে তালিকাভূক্ত হয়। এর অনুমোদিত মূলধন ৫০ কোটি টাকা এবং পরিশোধিত মূলধন ৪ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। বর্তমানে পিই রেশিও ৩১১.৩৬। ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে কোম্পানি শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ৫৭ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাড়িয়েছে ঋণাত্মক ৫৩.৭১ টাকায়।

কোম্পানিটির মোট শেয়ারের মধ্যে ৩৬.৪৯ শতাংশ শেয়ার ধারণ করছেন উদ্যোক্তা/পরিচালকেরা। বাকী শেয়ার ধারন করছেন প্রাতিষ্ঠানিক, বিদেশি ও সাধারণ বিনিয়োগকারী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here