আইপিও দুর্নীতি নিয়ে বিএসইসি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে তদন্তে দুদক

0
1129
বিএসইসি চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন

সিনিয়র রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আসা নিয়ে অনেক কোম্পনি অনিয়ম-দুর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে। অনেক অনিয়ম ও দুর্নীতির সঙ্গে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে।

দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) ৭ আগস্টেএ অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ‍দুদক সহকারি পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরীকে তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেয়।

চিঠিতে বলা হয়, বিএসইসি চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন একটি অসাধু গোষ্ঠির সঙ্গে যোগসাজশ করে দুর্বল মৌলভিত্তির কোম্পানি আইপিও অনুমোদন করছেন। কোম্পানিগুলো বাজারে শেয়ার বিক্রি করে বিপুল পরিমাণ টাকা তুলে নিচ্ছে। আর এসব অর্থের একটি বড় অংশ দেশের বাইরে পাচার হয়ে যাচ্ছে।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো- আট বছরে প্রায় ৮৮ কোম্পানির আইপিও অনুমোদন দিয়েছেন তিনি। এর মধ্যে অর্ধশত নিম্নমানের কোম্পানি রয়েছে। এসব কোম্পানির বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনে মিথ্যা তথ্য দিয়ে উচ্চ আয় দেখানোর আইপিও অনুমোদন দেন খায়রুল হোসেন। তার বিনিময়ে অর্থ আত্মসাৎ ও পাচার করেন।

আরও বলা হয়, ওইসব কোম্পানি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির পর বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের সূচক পতন শুরু করে। এছাড়া ওইসব কোম্পানির পূর্ববর্তী আয়ের রিপোর্টগুলো বানোয়াট বলেও অভিযোগ ওঠে।

দুদকের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশিদ চৌধুরীকে অভিযোগ তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। চলতি মাসের শুরুতেই তদন্তের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here