আইপিওভুক্ত ইফাদ অটোসের ‘আমলনামা’

1
6838

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে টাকা তোলার অনুমোদন পেয়েছে ইফাদ অটোস লিমিটেড। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫২৭তম সভায় প্রতিষ্ঠানটিকে এই অনুমোদন দেয়া হয়।

আগামী ২৩ থেকে ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত কোম্পানিটির আইপিওর আবেদনপত্র জমা দানের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ থাকবে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত। নতুন ও পুরাতন উভয় পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে কোম্পানিটি আইপিও টাকা উত্তোলন করবে বলে জানানো হয়।

রাজধানীর বাংলামোটরে কোম্পানির কার্যালয়ে সোমবার বিশেষ এক সাক্ষাতকারে ইফাদ অটোস লিমিটেডের সিএফও আবু সাঈদ আহমেদের সঙ্গে কোম্পানির আইপিও নিয়ে আলোচনা হয়। তার সঙ্গে আলাপ চারিতায় উঠে আসে নানা প্রসঙ্গ। স্টক বাংলাদেশ -এর প্রচেষ্টায় পাঠকদের উদ্দেশ্যে তুলে ধরা হলো চুম্বক কিছু অংশ। সাক্ষাতকার গ্রহণ করেছেন- শাহীনুর ইসলাম

ইফাদ গ্রুপের ইফাদসহ রয়েছে মোট ৮টি প্রতিষ্টান। এরমধ্যে ৬টি কোম্পানি তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম বেশ ভালেভাবেই পরিচালনা করেছে। কোম্পানিগুলো হচ্ছে- ইফাদ অটোস লিমিটেড, ইফাদ এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড, ইফাদ অটোমোবাইলস লিমিটেড, ইফাদ এগ্রো কমপ্লেক্স লিমিটেড, ইফাদ মাল্টি প্রডাক্টস লিমিটেড ও ইফাদ মাল্টি এন্ড ক্যামিকেলস লিমিটেড।

সব প্রতিষ্ঠানে রয়েছে অভিজ্ঞ পরিচালক মণ্ডলী। তার মধ্যে শুধুমাত্র ইফাদ অটোস পুঁজিবাজারে ২ কোটি ১২ লাখ ৫০ হাজার শেয়ার ছেড়ে ৬৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা সংগ্রহ করবে। অন্যান্য প্রতিষ্টানগুলো এখনো পুঁজিবাজারে আওতাভুক্ত হয়নি। তবে প্রতিষ্ঠানগুলো ধারাবাহিকতা বজায় রেখে চলছে।

দীর্ঘদিন ধরে বিএসইসিকে প্রিমিয়াম ছাড়া কোম্পানিকে আইপিওতে তালিকাভুক্ত না করার দাবি করছে সাধারণ বিনিয়োগকারী ও বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ। তাদের দাবি এখনো কার্যকর হয়নি। অন্যদিকে মন্দ-ভালো বিভেদ না করে এমনকি ভুয়া তথ্যের ভিত্তিতেও অনেক কোম্পানিকে পুঁজিবাজারে আইপিওর টাকা তুলতে অনুমোদন দিচ্ছে বিএসইসি।

অন্যান্য কোম্পানির মতো ‘প্রিমিয়ামের স্রোতে’ ইফাদ অটোস ভাসালো কেন- এমন প্রশ্ন ছিল ইফাদ অটোস লিমিটেডের সিএফও আবু সাঈদ আহমেদের কাছে। জবাবে তিনি বলেন, ভালো যেসব কোম্পানি সেগুলো ভালো প্রিমিয়াম নিয়েই পুঁজিবাজারে আসবে, এটাই স্বাভাবিক। কেননা, গত ২৫ বছর ধরে আমাদের কোম্পানি সুনামের সঙ্গে কাজ করছে।

ইফাদ গ্রুপের ইফাদ অটোসের শেয়ারপ্রতি ফেস ভ্যালু নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। এর সঙ্গে বাড়তি ২০ টাকা প্রিমিয়াম মিলে শেয়ারপ্রতি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ টাকা। কোম্পানিটির ২০১২ সালে ইপিএস ছিল ২.৯৬ টাকা। ২০১৩ সালে তা বেড়ে হয়েছে ২.৯৮ টাকা এবং এরপরে ২০১৪ সালে ইপএিস প্রায় দ্বিগুণ হয়ে ৫.১৬ টাকায় দাঁড়ায়।

২০১৪ সালে কোম্পানির ইপিএস বৃদ্ধি নিয়ে আবু সাঈদ আহমেদ বলেন, ২০১৩ সালে রাজনৈতিকভাবে সারাদেশে একটা বিপর্যয় ছিল। এরপরের বছর ২০১৪ সালে ব্যবসায়ীরা সে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চায়। যে কারণে আমাদের ‘ডিমান্ড’ অনেক বেড়ে যায় এবং কোম্পানি ব্যবসা খুব ভালো করে।

ইফাদ অটোস লিমিটেড ১৯৮৫ সালে প্রথম ব্যবসা শুরু করে। বাজারে (থ্রি হুইলার) বেবিটেক্সি বিক্রির মাধ্যমে ব্যবসার গোড়া পত্তন হয়। এরপরে ব্যবসায়িক সাফল্যের ধারাবাহিকতায় কোম্পানি মোটরসাইকেলের ব্যবসা শুরু করে। তারপরে আরো যোগ হয় অত্যাধুনিক প্রযুক্তির গাড়ির ব্যবসা।

ইফাদ অটোস লিমিটেডের সিএফও বলেন, গত বছরই নতুন আরো তিনটি প্রডাক্ট আমাদের কোম্পানিতে যুক্ত হয়েছে। এর আগে আমাদের ১টন ও ৩ টনের কোন গাড়ি ছিল না। গত বছর এসব প্রডাক্ট যুক্ত হওয়ায় কোম্পানি ব্যবসা আরো ভালো করে। একই সঙ্গে অন্য প্রডাক্টগুলোর গড় বিক্রয় বৃদ্ধি পেয়েছিল।

সিএফও বলেন, গত বছর জানুয়ারিতে জাতীয় নির্বাচনের পর দেশ যখন রাজনীতিকভাবে স্থিতিশীলতার দিকে তখনই পুঁজিবাজারের একটা সুস্থ ধারা দেখা যায়। যার কারণে অর্থনীতি সচলের প্রথম প্রভাব পড়ে পুঁজিবাজারে এবং এরপরই পর্যায়ক্রমে তা হিট করে অর্থনীতির অন্য সব সেক্টরগুলোতে। সে কারণে বিক্রয়ও বেড়ে যায়।

ব্যবসায়িক দৃষ্টিতে আপনাদের প্রতিযোগী হিসেবে কোন কোম্পানিকে মনে করছেন। এমন প্রশ্নের জবাবে আবু সাঈদ আহমেদ বলেন, আমাদের মূল ব্যবসা গাড়ির। আমাদের কোম্পানিতে অনেক আগে থেকেই রয়েছে ৭ টনের ট্রাক। নুতন এসেছে ১টন ও ৩ টনের ট্রাক। যেহেতু একই বাজারে রয়েছে- নিটল টাটা, রানার এবং ইফাদ আটোস। তাই গুণগত ও মান সম্পন্ন পণ্য বাজারে দেয়াই আমাদের প্রথম শর্ত। যে কারণে গত ২৫ বছর ধরে এখনো সুনাম নিয়ে মার্কেটে আছি। এবং গুণগত ও মান সম্পন্ন পণ্য দিয়েই এই অবস্থান দখলে নিয়েছি। আমরা তাদের কাউকে প্রতিযোগী মনে করছি না- আমরাই আমাদের প্রতিযোগী। এখন নতুন পলিসি ও মান সম্মত পণ্য দিয়ে মার্কেটের সর্বোচ্চ স্থান দখল করাই আমাদের চেষ্টা।

পুঁজিবাজারে শেয়ারমূল্যের দৃষ্টিকোণে আফতাব অটোসকে প্রতিযোগী মনে করেন কি-না? এমন প্রশ্নের উত্তরে সিএফও বলেন, বিনিয়োগকারীরা এটা নির্ধারণ করবেন। তবে আমাদের প্রত্যাশা, আমরা সুনাম অক্ষুণ রাখতে পারবো। তাছাড়া আফতাব অটোস এবং ইফাদ অটোসের ব্যবসার ধরণও ভিন্ন।

রাজধানীর বাংলামোটরে কোম্পানির কার্যালয়ে বিশেষ এক সাক্ষাতকারে ইফাদ অটোস লিমিটেডের সিএফও আবু সাঈদ আহমেদ বলেন, গত বছরে ইফাদ অটোস ২৬ কোটি ৭৪ লাখ টাকা ট্যাক্স দেয়। তাহলে কোম্পানি ব্যবসা যে ভালো এটা তারই প্রমাণ বহন করে।

ইফাদ অটোস পুঁজিবাজার থেকে ২ কোটি ১২ লাখ ৫০ হাজার শেয়ার ছেড়ে ৬৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা সংগ্রহ করবে। পুঁজিবাজার থেকে সংগৃহিত অর্থ দিয়ে কোম্পানির এসেম্বিং প্লান্ট, গাড়ির বডি বিল্ডিং ইউনিট নির্মাণ এবং প্রায় ৯ কোটি টাকা ব্যাংক ঋণ পরিশোধ করা হবে।

আইপিওর টাকায় ব্যাংক ঋণ পরিশোধ করা হবে- এটা কি ব্যবস্থাপনার ব্যর্থতা নয়। এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রায় ৯ কোটি ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং ৫০ কোটি টাকা কোম্পানির ব্যবসা সম্প্রসারণের কাজে ব্যয় হবে। ইতোমধ্যে ঢাকার ধামরাইয়ে প্রায় ৫০ বিঘা জমি রাস্তার পাশে কেনা হয়েছে। কোম্পানির সুপার ভিশনের দায়িত্বে থাকবে অশোক লেল্যান্ড।

ইফাদ গ্রুপের ইফাদ মাল্টি প্রডাক্টস লিমিটেডের বিস্কিট ও নুডুলস আগামী মাসে মালয়েশিয়া রপ্তানীর সম্ভাবনা রয়েছে। তবে বর্তমানে শুধুমাত্র লোকাল মার্কেটে ইফাদের পণ্য বিপণন করা হচ্ছে।

কোম্পানির ঋণ সম্পর্কে তিনি বলেন, আল আরাফা ব্যাংকে এখন পর্যন্ত কোম্পানির সর্বোচ্চ ঋণ রয়েছে ১০৭ কোটি টাকা। গত বছরের আমাদের বার্ষিক বিক্রয় হয়েছে প্রায় ৮১৫ কোটি টাকা। তবে গত বছরগুলোতে গড় বিক্রয়ের পরিমাণ ৪০০ থেকে ৫০০ কোটি টাকার মধ্যে হয়েছিল।

২০১৪ সালের ৩০ জুন শেষ হওয়া অর্থ বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী ইফাদ অটোসের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ১৬ পয়সা। নেট অ্যাসেট ভ্যালু (এনএভি) হয়েছে ৪৪ টাকা ১২ পয়সা।

কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে ব্যানকো ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড এবং আলফা ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

উল্লেখ্য, সাক্ষাতকারের দ্বিতীয় অংশ আগামী সপ্তাহে প্রকাশ করা হবে।

পেছনের খবর : আসছে ইফাদ অটোর আইপিওর

1 COMMENT

  1. Dear Sir ,
    I hv read Efad autos background .
    which make me confident to apply IPO .
    Really I appreciate to Daily Stock Bangladesh reporter and family ,
    for well action to improver your online share news quality .
    Now your web is more update then previous .
    Now Everyday I will read your on line news .
    B/Rgds .
    Rezaul. Baridhara dohs , Dhaka # Cell # 01823011982 .

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here