শেষ ২দিনের অপেক্ষায় অলিম্পিক এক্সেসরিজ

0
6825

হোসাইন আকমল : প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে টাকা উত্তোলন করছে অলিম্পিক এক্সেসরিজ লিমিটেড। চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল, রোববার থেকে শুরু হয়েছে অলিম্পিক এক্সেসরিজের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে  আবেদন। ২৩ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার আবেদনের শেষ দিন।

তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ রয়েছে ২ই মে,  শনিবার পর্যন্ত। নতুন ও পুরাতন উভয় পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে কোম্পানিটির আইপিও টাকা উত্তোলন করা হচ্ছে। এর আগে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫৩৯তম সভায় এ কোম্পানির আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়।

অলিম্পিক এক্সেসরিজের আইপিওতে আবেদনের ৩য় দিনে এসেও তেমন সাড়া দেখা যায়নি বিনিয়োগকারীদের। মঙ্গলবার দুপুরে কিছু ব্যাংক ও সিকিউরিটিজ হাউজ ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

ন্যাশনাল ক্রেডিট এন্ড কমার্স ব্যাংক : কারওয়ান বাজারের ন্যাশনাল ক্রেডিট এন্ড কমার্স ব্যাংকে (এনসিসি ব্যাংক) বিনিয়োগকারীর খুব একটা ভীড় লক্ষ্য করা যায়নি। আবেদন শুরুর দিন থেকে ব্যাংকটিতে এ পর্যন্ত সাধারণ প্রায় ১ হাজার ৩ শ’টি ও ক্ষতিগ্রস্ত ১ শ’ ৫০টি আইপিও আবেদন জমা পড়েছে। টাকার অংকে সাধারণ ৬৫ লাখ টাকা, ক্ষতিগ্রস্ত ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা। সাধারণ ও ক্ষতিগ্রস্ত মিলে একত্রে ৭২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

মিউচুয়্যাল ট্রাস্ট ব্যাংক : পান্থপথের মিউচুয়্যাল ট্রাস্ট ব্যাংকে (এমটিবি) অলিম্পিকের আইপিওতে আবেদনকারীদের উপস্থিতির অকাল লক্ষ্য করা গেছে। মাঝে মাঝে ২-১ জন আবেদনকারী ছাড়া অধিকাংশ সময় লাইন ছিল জনশূন্য। তবে সকালে আইপিও আবেদনকারীদের কিছুটা চাপ ছিল বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ব্যাংক-কর্মকর্তা।

আবেদন শুরুর দিন থেকে ব্যাংকটিতে  এ পর্যন্ত  সাধারণ নগদ টাকায় প্রায় ২ হাজার ও ট্রান্সফার প্রায় ১ হাজার, সবমিলে ৩ হাজার আইপিও আবেদন জমা পড়েছে বলে জানান ব্যাংক-কর্মকর্তা। তিনি আরো জানান, ব্যাংকটিতে এ পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ১ শ’ ৭০টি আইপিও আবেদন জমা পড়েছে। টাকার অংকে সাধারণ ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা, ক্ষতিগ্রস্ত ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা। সাধারণ ও ক্ষতিগ্রস্ত মিলে একত্রে ১ কোটি ৫৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

প্রিমিয়ার ব্যাংক : কারওয়ান বাজারের প্রিমিয়ার ব্যাংকে আইপিও-আবেদনকারীদের উপস্থিতির দৈনতা দেখা গেছে। আবেদন শুরুর দিন থেকে ব্যাংকটিতে এ পযর্ন্ত সাধারণ (নগদ টাকা ও ট্রান্সফারসহ) প্রায় ১ হাজার ৩ শ’টি ও ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ১ শ’টি আইপিও আবেদন জমা পড়েছে। টাকার অংকে সাধারণ ৬৫ লাখ টাকা ও ক্ষতিগ্রস্ত ৫ লাখ টাকা। সাধারণ ও ক্ষতিগ্রস্ত মিলে একত্রে ৭০ লাখ টাকা।

DSC02413

ন্যাশনাল ব্যাংক : কারওয়ান বাজারের ন্যাশনাল ব্যাংকে অলিম্পিকের আইপিওতে আবেদনকারীদের তেমন ভীড় না থাকলেও স্বাভাবিক উপস্থিতি ছিল। আবেদন শুরুর দিন থেকে  ব্যাংকটিতে  এ পর্যন্ত  সাধারণ প্রায় ৩ হাজার ১ শ’ ৬২টি ও ক্ষতিগ্রস্ত ৩ শ’ ২২টি আইপিও আবেদন জমা পড়েছে বলে জানান ঐ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা। টাকার অংকে সাধারণ ১ কোটি ৫৫ লাখ টাকা, ক্ষতিগ্রস্ত ১৬ লাখ ১০ হাজার টাকা। সাধারণ ও ক্ষতিগ্রস্ত মিলে একত্রে ১ কোটি ৭১ লাখ ১০ হাজার টাকা।

DSC02412

প্রসঙ্গত, অলিম্পিক এক্সেসরিজ কোম্পানি গার্মেন্টস বা তৈরি পোশাকের জন্য বিভিন্ন ধরণের ‘প্রডাক্ট’ তৈরি করে। বিদেশী  ‘বায়ারদের’ আশ্বস্ত করতে তৈরি পোশাকের প্রায় সব ধরণের উপাদান তৈরি করে এবং অন্য কোম্পানির কাছে সাপ্লাই করে। তাদের নিজস্ব কোন গার্মেন্টস কারখানা নেই। এ কোম্পানিতে বর্তমানে ২৬৪ জন শ্রমিক কাজ করছে।

কোম্পানিটির দীর্ঘ মেয়াদী কোন ঋণ না থাকলেও স্বল্প মেয়াদের ঋণ রয়েছে ৮ কোটি টাকা। কোম্পানিটি উৎপাদনে আসে ২০১১ সালে। তবে এখন পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ কোন লভ্যাংশ ঘোষণা করেনি।

উল্লেখ্য, অলিম্পিক এক্সেসরিজ প্রিমিয়াম ছাড়াই আইপিওতে আসছে। প্রিমিয়াম না থাকায় কোম্পানিটি অভিহিত মূল্যে অর্থাৎ ১০ টাকা দরে  ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে শেয়ারবাজার থেকে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। সংগৃহীত অর্থে কোম্পানিটি নতুন ফ্যাক্টরি বিল্ডিং তৈরি, মেশিনারিজ ক্রয় এবং আইপিও খরচ খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৪৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৬.৩৪ টাকায়।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে পিএলএফএস ইনভেস্টমেন্ট এবং সিএপিএম এ্যাডভাইজরি লিমিটেড।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here