অর্থনীতির ভিত শক্তিশালী করে পুঁজিবাজার

0
907

শ্যামল রায় : পুঁজিবাজারে প্রায় ৯ বছর দরে বিনিয়োগ করেন মো. খোরশেদ আলম। তিনি আকিজ সিকিউরিটিজের মাধ্যমে এই বিনিয়োগ করেছেন। শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ এবং ব্যবসা তার শুরু হয়েছিল বন্ধুর হাত ধরেই। দেখতে-দেখতে অম্ল-মধুর অভিজ্ঞতা নিয়ে তার কেটেছে অনেকগুলো বছর। স্টক বাংলাদেশ -এর কাছে তুলে ধরেন তার অভিজ্ঞতার কথা।

খোরশেদ আলম বলেন, শেয়ার বাজারে যখন প্রবেশ করি, তখন মার্কেটের অবস্থা ছিল বেশ ভালো ছিল। আমার মনে হয়েছিলো শেয়ার বাজার বিনিয়োগের জন্য একটা উত্তম স্থান। অর্থাৎ যাই কিনি লাভ হয়ে যায়। এরপর আমি বন্ধু বান্ধবদের কাছ থেকে এবং আমার পরিবারের লোকদের কাছ থেকে অনেক টাকা ধার করে এনে শেয়ার বাজারে ইনভেষ্ট করি।

তিনি বলেন, আসলে এটা ছিল আমার জীবনের চরম একটা শিক্ষা। ভুল ভাঙলো অল্প কিছুদিন পরেই। এরপরেই মার্কেটে এমন একটা পতন শুরু হলো, শেয়ার বেঁচে দেওয়ার সময় পর্যন্ত পাচ্ছিলাম না। পরে এমন অবস্থা হলো, বিনিয়োগের পর থেকে আস্তে আস্তে যে লাভ টুকু করেছিলাম তা গেলো, উপরন্ত যে মূলধন অন্যের কাছ থেকে চেয়ে চিনতে নিয়ে আসছিলাম তাও প্রায় চলে গেল।

মারাত্মক একটা ঝুকির মধ্যে পড়ে গেলাম। পরে এমন অবস্থা হল যে বাঁচার আশা বাদ দিলাম। ফ্রাস্ট্রেশন ঘিরে ধরল আমাকে। রাত্রে ঘুমোতে পারতাম না। ঐসব দিনগুলোর কথা মনে পড়তে আজও গাঁ শিউরে ওঠে। গায়ের লোম খাঁড়া হয়ে যায়।

মো. খোরশেদ আলম বলেন, অবস্থা পরিবর্তন হয়েছে, অনেকেই কনফিডেন্টের সাথে শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করছে। শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের ঝুকিও কমেছে। তারপরও আমার আশা, শেয়ার বাজার আরও ভালো হোক এবং তা হওয়া উচিত।

অর্থনীতির ভিতকে শক্তিশালী করে পুঁজিবাজার। আর শেয়ার বাজারকে অস্থীতিশীল রেখে কোন দেশের অর্থনীতির ভিত শক্তিশালী হতে পারে না। দেশের সরকারকে এ সত্যটা অনুধাবন করা উচিত। বেশ কিছুদিন ধরে দেখছি বাজার শুধু উঠছে আর নামছে। অর্থাৎ ভালো হতে পারছে না। বিনিয়োগকারীদের মনে আশংকা তৈরী হচ্ছে। তারা বিনিয়োগ করতে সাহস পাচ্ছেন না।

খোরশেদ আলম আরো জানান, বাংলাদেশের শেয়ার মার্কেট এমনিতেই অনেক সেনসিটিভ। কোন কিছু হওয়ার আশংকায় এখানে বিনিয়োগকারীরা আতংকের মধ্যে পড়ে যায়। সকলের মধ্যে আতংক, আবার বোধ হয় শেয়ার বাজারে ধ্বস আসছে। তাই তারা বিনিয়োগ না করে অবজার্ভ করছেন। তবে আগের সেব সব চিত্র বদলে গেছে, আগের চেয়ে অনেক ভালো রয়েছে। বিনিয়োগ করা যেতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here